সাম্প্রতিক কার্যক্রম :
র‌্যাবের অভিযানে আইন-শৃংঙ্খলা বাহিনীর ভূয়া পরিচয়ে স্কয়ার ফার্মার ২ কোটি টাকা মূল্যের কাঁচামাল ডাকাতির ঘটনায় দুর্ধর্ষ ডাকাত দলের মূল হোতাসহ ০৩ সদস্যকে ঢাকা ও রাজশাহী হতে গ্রেফতার। ডাকাতির মালামাল উদ্ধার। ✱ র‌্যাবের অভিযানে রাজধানীর গুলশান ও বাড্ডা এলাকা হতে জাল শিক্ষা সনদ তৈরী চক্রের ০৪ জন অভিযুক্ত গ্রেফতার। ✱ র‌্যাবের অভিযানে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রাফিক বিভাগে কর্মরত কনস্টেবল শরীফ (৩৩) হত্যার লোমহর্ষক রহস্য উদঘাটন এবং হত্যাকান্ডের ঘটনায় জড়িত মূলহোতাসহ ০৩ জনকে গ্রেফতার\ হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত রক্তমাখা চাকু ও বাসের হুইল রেঞ্জ উদ্ধার এবং রক্তমাখা বাসটি জব্দ। ✱ র‌্যাবের অভিযানে রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হতে গোপনে দেশত্যাগের প্রাক্কালে ধৃত ০৪ জন অবৈধ অর্থ পাচারকারী নিকট হতে চাঞ্চল্যকর তথ্য উদঘাটন এবং বিদেশী পিস্তল, ম্যাগাজিন, গুলিসহ বিপুল পরিমান নগদ টাকা উদ্ধার। ✱ র‌্যাবের অভিযানে রাজধানীর মোহাম্মদপুর থেকে ঢাকার আন্ডার ওয়াল্ডের শীর্ষ সন্ত্রাসী জিসানের অন্যতম সহযোগী মাজহারুল ইসলাম @ শাকিল গ্রেফতার ✱ র‌্যাবের অভিযানে দেহের অভ্যন্তরে মাদক দ্রব্য বহনকারী ০৩ নারীসহ ০৮ মাদক ব্যবসায়ী আটক ॥ ১৫,০৮০ পিস ইয়াবা উদ্ধার। ✱ র‌্যাবের অভিযানে ঢাকা জেলার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানাধীন চুনকুটিয়া এলাকা হতে অস্ত্র ও র‌্যাবের পোশাকসহ ০২ জন ভুয়া র‌্যাব আটক ✱ র‌্যাবের অভিযানে রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হতে গোপনে দেশত্যাগের প্রাক্কালে ০৪ জন অবৈধ অর্থ পাচারকারী ও জাল টাকা সরবরাহকারী গ্রেফতার \ বিপুল পরিমান দেশী-বিদেশী মুদ্রাসহ জাল টাকা উদ্ধার। ✱ র‌্যাবের অভিযানে রাজধানীর আশুলিয়া থানাধীন কাঠগড়া পালোয়ানপাড়া এলাকায় চাঞ্চল্যকর পাঠাও রাইড চালককে গলা কেটে হত্যার ঘটনায় জড়িত সংঘবদ্ধ ছিনতাইকারী দলের ০৩ জন গ্রেফতার এবং ভিকটিমের ব্যবহৃত মোবাইল উদ্ধার। ✱ র‌্যাবের অভিযানে নারায়ণঞ্জের সোনারগাঁ হতে কাভার্ড ভ্যানে ফেনসিডিল পাচারকালে ০৩ জন গ্রেফতার। ৪৭০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার ও কাভার্ড ভ্যান জব্দ। ✱

এ্যাডমিন অ্যান্ড ফাইন্যান্স উইং

১। র‌্যাব ফোর্সেস সদর দপ্তর এর প্রশাসন ও অর্থ উইং সকল প্রকার প্রশাসনিক এবং যাবতীয় অর্থ সংক্রান্ত কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে। এই উইং সকল কর্মকান্ড সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য প্রধান চারটি শাখায় বিভক্ত। শাখা এবং উপ-শাখাসমূহের সংক্ষিপ্ত কাজের প্রকৃতি নিম্নরূপঃ

ক। এ্যাডমিন জেনারেল শাখা: এই শাখার তত্ত্বাবধানে তিনটি উপ-শাখা রয়েছে। উপ-শাখাগুলোর কাজের প্রকৃতি নিম্নরূপঃ

(১) সাপ্লাই উপ-শাখা: র‌্যাব ফোর্সেস এর সদস্যদের জন্য ক্লোদিং সামগ্রী, অস্ত্র, গোলাবারুদ, র‌্যাব সদর দপ্তরের ষ্টেশনারী দ্রব্যসামগ্রী ক্রয়, বিতরণ এবং এভিয়েশন ফুয়েল সরবরাহ করে থাকে।

 (২) পার্সোনেল উপ-শাখা: র‌্যাব সদস্যদের বদলী, পদোন্নতি, শৃঙ্খলা এবং কল্যাণ বিষয়ক সকল কার্যক্রম সম্পন্ন করে থাকে।

 (৩) জেনারেল উপ-শাখা: র‌্যাব ফোর্সেস সদর দপ্তরের র‌্যাব সদস্যদের কোয়ার্টারিং, টেলিফোন এবং মোবাইলের বিল সংক্রান্ত বিষয়াদি নিয়ে কাজ করে থাকে। এছাড়াও বাৎসরিক পুলিশ সপ্তাহ এবং জাতীয় প্যারেডে র‌্যাব কন্টিনজেন্ট এর অন্যান্য আনুষ্ঠানিক কার্যাবলী ও সামগ্রিক প্রশাসনিক ব্যবস্থা নিশ্চিত করে থাকে।

খ। সদর দপ্তর শাখা: সদর দপ্তর শাখার তত্ত্বাবধানে তিনটি উপ-শাখা রয়েছে। উপ-শাখাগুলোর কাজের প্রকৃতি নিম্নরূপঃ

 (১) সদর দপ্তর শাখা: র‌্যাব ফোর্সেস সদর দপ্তরের সামগ্রিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা, ক্যান্টিন, অফিসার্স ফিল্ডমেস, ডিএডি মেস, ফোর্সেস মেস, কোত ও ম্যাগাজিন এবং প্রশাসন ও অর্থ উইং এ কর্মরত সকল সদস্যের বেতন, ভাতা ও ছুটি সংক্রান্ত কার্যক্রম করে থাকে। এছাড়াও র‌্যাব ফোর্সেস সদর দপ্তরের কেদ্রীয় রেশন ষ্টোর পরিচালনা এবং র‌্যাব সদর দপ্তরে অনুষ্ঠিত বিভিন্ন আনুষ্ঠানিক কর্মসূচীর প্রশাসনিক ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করে থাকে।

 (২) মেডিকেল উপ-শাখা: র‌্যাব ফোর্সেস সদর দপ্তরে কর্মরত সকল সদস্যের বিভিন্ন রোগের পরীক্ষা-নিরীক্ষাসহ বিভিন্ন চিকিৎসা সেবা দিয়ে থাকে।

(৩)  রেকর্ড উপ-শাখা: র‌্যাব ফোর্সেস সদর দপ্তরের সকল সদস্যদের ব্যক্তিগত ইউনিট কপি শীটরোল/সার্ভিস বই হালনাগাদ কার্যক্রম নিশ্চিত করে থাকে।

গ। অর্থ শাখা: র‌্যাব ফোর্সেস এর অর্থ সংক্রান্ত যাবতীয় কার্যক্রম সম্পন্ন করে। অর্থ শাখার তত্ত্বাবধানে তিনটি উপ-শাখা রয়েছে। উপ-শাখাগুলোর কাজের প্রকৃতি নিম্নরূপঃ

(১) প্রকিউরমেন্ট শাখা: র‌্যাব ফোর্সেস এর সকল ধরনের সরকারী ক্রয় সংক্রান্ত কাজ করে থাকে।

(২) এ্যাকাউন্ট ও বাজেট শাখা: র‌্যাব ফোর্সেস এর সকল প্রকার বাজেট ও অর্থ বরাদ্দ সংক্রান্ত কার্যক্রম করে থাকে।

(৩) উন্নয়ন উপ-শাখা: র‌্যাব ফোর্সেস এর অবকাঠামো নির্মাণ সংক্রান্ত সকল কাজ করে থাকে।

ঘ। সেন্ট্রাল ওয়ার্কশপ শাখা: এই শাখা র‌্যাব ফোর্সেস সদর দপ্তরের সকল যানবাহন এবং র‌্যাব ফোর্সেস এর সকল অস্ত্রের মেরামত ও সষ্ঠু রক্ষণাবেক্ষণ নিশ্চিত করে থাকে। এছাড়াও র‌্যাব ফোর্সেস এর যানবাহন ও অস্ত্রের বাৎসরিক কারিগরী পরিদর্শন সম্পন্ন করে থাকে।