সাম্প্রতিক কার্যক্রম :
র‌্যাবের অভিযানে মাদারীপুর থেকে ০১ জন জেএমবি’র সক্রিয় সদস্য গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। ✱ র‌্যাবের অভিযানে চট্টগ্রাম জেলার হাটহাজারী থানাধীন ফতেয়াবাদ এলাকায় অভিযান চালিয়ে ০১ টি ওয়ানশুটারগান, ০৫ রাউন্ড খালি খোসা, ১৪ টি রামদা, ০১ টি চাইনিজ কুড়ালসহ বিপুল পরিমাণ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার এবং ০২ জন অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। ✱ ফেসবুক পেইজে নেশা জাতীয় দ্রব্য (গাঁজা) এর বিভিন্ন ধরণের ছবি পোষ্টের মাধ্যমে রাষ্ট্রের ভাবমূর্তি বা সুনাম ক্ষুন্ন করার দায়ে রাজধানীর তেজগাঁও থানাধীন পশ্চিম নাখাল পাড়া এলাকা হতে ০১ (এক) অপরাধীকে গ্রেফতার। ✱ র‌্যাবের অভিযানে এসএমপির সদর থানা এলাকায় ভেজাল বিরোধী অভিযানে ০৫ টি প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা প্রদান। ✱ র‌্যাবের অভিযানে সিপিসি-১ (পটুয়াখালী ক্যাম্প) কর্তৃক পটুয়াখালীর গলাচিপা হতে বহুল আলোচিত মাদক ব্যবসায়ী আটক। ✱ র‌্যাবের অভিযানে ১৪৫৫ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধারসহ ০১ জন শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার। ✱ র‌্যাবের অভিযানে ময়মনসিংহ কর্তৃক মুক্তাগাছা থানাধীন বানারপাড় এলাকায় পিকআপে লুকিয়ে পরিবহনকালে ৩৮৫ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার। ০২ মাদক ব্যবসায়ী আটক। ✱ র‌্যাবের অভিযানে কুমিল্লা দাউদকান্দি হতে পিকআপ ভ্যানে সবজির আড়ালে গাঁজা পাচারকালে গ্রেফতার ০১। ৩৫ কেজি গাঁজা উদ্ধার ও পিকআপ জব্দ। ✱ র‌্যাবের অভিযানে রাজধানীর দারুস সালাম থানাধীন মিরপুর বেড়িবাঁধ ও গাবতলি এলাকা থেকে ৩৫ কেজি গাঁজা সহ প্রাইভেট কার ও মাহেন্দ্র আটক। ০২ মাদক কারবরিকে গ্রেফতার ✱ র‌্যাবের অভিযানে নাটোর জেলার সদর থানাধীন বনবেলঘরিয়া এলাকা থেকে ৫৮ কেজি গাঁজা উদ্ধারসহ ০৩ জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ✱

এয়ার উইং

১।    র‌্যাব ফোর্সেস এয়ার উইং এর পরিচিতি নিন্মে তুলে ধরা হলোঃ

    ক।    র‌্যাব ফোর্সেস এর গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ এয়ার উইং। স্থল ও জলের পাশাপাশি আকাশপথে পর্যবেক্ষণ ও আভিযানিক কার্যক্রম পরিচালনার লক্ষ্যে গত ০২ জুলাই ২০০৬ তারিখ অত্র উইং প্রতিষ্ঠা করা হয়। পরবর্তীতে ২০১২ সালের শেষ দিকে অত্র উইং এর ইনভেন্টরীতে ০২ টি বেল-৪০৭ হেলিকপ্টার সংযোজিত হলে এয়ার উইং প্রকৃতভাবে এর সক্রিয়তা লাভ করে।

    খ।    র‌্যাব ফোর্সেস এর মনোগ্রামের পটভূমিতে একটি দ্রুত গতিতে উড্ডয়নরত বেল-৪০৭ হেলিকপ্টার সম্বলিত মনোগ্রাম উইং এর পরিচিতির প্রতীক হিসেবে বৈমানিকগণ তাদের বুকে পরিধান করেন এবং ৩০ লক্ষ শহীদের আত্মত্যাগে অনুপ্রাণিত হয়ে, সুখি সমৃদ্ধ দেশ গড়ে তোলার প্রয়াসে র‌্যাব ফোর্সেস এর সকল কার্যক্রমে আকাশ মাধ্যমে সহায়তাকল্পে সদা প্রস্তুত উইং এর প্রতিটি সদস্য। উইং এর এ মনোগ্রাম তারই বার্তাবাহক।

    গ।    হেলিকপ্টারটিতে ০২ জন পাইলট ও ০৫ জন যাত্রী পরিবহন করার ব্যবস্থা রয়েছে। এছাড়াও এই হেলিকপ্টার এর মাধ্যমে আকাশ থেকে জরুরী পর্যবেক্ষণ প্রদানের পাশাপাশি দুস্কৃতিকারীর মনে ভীত সঞ্চারণে হেলিকপ্টার অত্যন্ত কার্যকর ভূমিকা পালন করে। যার প্রেক্ষিতে, ১লা বৈশাখ, বইমেলা ও ইজতেমার মত বৃহৎ পরিসরের আয়োজন সমূহে অত্র উইং এর হেলিকপ্টার সমূহ টহল ও নজরদারী কার্যে মোতায়েন করে। তাছাড়া দক্ষিণে উপকূল অঞ্চলে জলদস্যুদের আত্মসমর্পণ অথবা উত্তর অঞ্চলের বিস্তীর্ণ চর সমূহে জঙ্গি দমনে এয়ার উইং গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। পাশাপাশি এই উইং মুমূর্ষ রোগী পরিবহন, গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গের গমনাগমন প্রতিনিয়তই পরিচালনা করে। জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক কার্যক্রমে নানাবিধ অনুষ্ঠান ও সমাবেশে র‌্যাব ফোর্সেস এর গ্রাউন্ড ফোর্সের পাশাপাশি আকাশে হেলিকপ্টার এর নিয়মিত টহল জনমনে আস্থা স্থাপনে বিশেষ কার্যকর ভূমিকা পালন করে। অতি শীঘ্রই এই হেলিকপ্টারে নাইট ভিশন ডিভাইস সংযোজিত হতে যাচ্ছে, এর ফলে রাত্রীকালীন সময়ে যে কোন স্থানে ল্যান্ডিং সহ প্রয়োজনীয় লক্ষ্যবস্তু চিহিতকরণ সম্ভব হবে। ২০১৯ সালে অত্র উইং প্রথমবারের মত অভিজ্ঞ প্রশিক্ষক দ্বারা সম্পূর্ণ নতুন পাইলটদের হেলিকপ্টার কনভার্শন কোর্স পরিচালনা করে। এর ফলে উইং এর প্রশিক্ষণ কার্যক্ষমতা অনেকাংশে বৃদ্ধি পেয়েছে। মাননীয় মহাপরিচালকের অনুমতিক্রমে অত্র উইং বেল-৪০৭ ফ্লাইং সিমুলেটর ক্রয় এবং যথাস্থানে স্থাপনের দ্বারপ্রান্তে। ইনশাল্লাহ আগামী বছরের শুরুতে উক্ত সিমুলেটরের মাধ্যমে প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালনা করা সম্ভবপর হবে। এই সিমুলেটরের মাধ্যমে সদ্য পোস্টিংকৃত পাইলটরা তাদের দক্ষতা বহুলাংশে বৃদ্ধি করতে পারবে। এছাড়াও উড্ডয়নের বিভিন্ন জরুরী পরিস্থিতির প্রশিক্ষণ উক্ত সিমুলেটর এর মাধ্যমে সম্ভবপর হবে। প্রথমবারের মত গত ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ র‌্যাপলিং এর মাধ্যমে বনানীর নরডিক হোটেলে এ র‌্যাব স্পেশাল ফোর্সের সদস্যদের অবতরণ করানো হয়েছে। বনানীর মত জনবহুল এলাকায় সুউচ্চ দালানকোঠার মাঝে র‌্যাপলিং এর মাধ্যমে স্পেশাল ফোর্সের অবতরণ এটাই প্রমান করে যে, যে কোন স্থানে যাত্রী অথবা স্পেশাল দল নিয়ে অবতরণ অথবা পরিবহন করার ক্ষমতা অত্র উইং এর রয়েছে। বিগত বছরগুলোর ন্যায় এবার ও অত্র উইং এর দুটি হেলিকপ্টার বিজয় দিবস প্যারেডে অংশগ্রহণ করবে। র‌্যাব এয়ার উইং এর সাধারণ কার্যাবলি নিন্মরুপঃ

    ক।    অনুসন্ধান এবং উদ্ধারকাজে সহায়তা প্রদান।
    খ।    আহত-নিহতদের দ্রুততার সাথে নিরাপদ স্থানে পরিবহন।
    গ।    আকাশ থেকে স্থিরচিত্র নেয়া ও পর্যবেক্ষণ করা। 
    ঘ।    এক স্থান থেকে অন্য স্থানে দ্রুততার সাথে নিজস্ব বাহিনীর সদস্য এবং গুরুত্বপূর্র্ণ সরঞ্জামাদি পরিবহন।
    ঙ।    উশৃংখল জনসমাবেশ নিয়ন্ত্রণে আকাশ থেকে পুলিশি কার্যক্রম পরিচালনা।
    চ।    র‌্যাব সদস্যদের দ্রুততার সাথে তাদের অভিযানের লক্ষ্য স্থানে পৌঁছে দেওয়া। 
    ছ।    গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গের নিরাপত্তা প্রদানে ভূমিতে অবস্থিত বাহিনীকে সহায়তা প্রদান করা।
    জ।    আকাশ পথে গোয়েন্দা সংবাদ সংগ্রহ কার্যক্রম পরিচালনা করা।
    ঝ।    সন্ত্রাসীদের আস্তানায় ত্বড়িৎ অভিযান পরিচালনা করা।
    ঞ।    প্রয়োজনে অন্যান্য নিরাপত্তা বাহিনীকে বিমান সহায়তা প্রদান করা।  

২।    দেশের সকল স্তরের জনমানুষের কল্যাণ আইনশৃংখলা রক্ষায় এবং দেশের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি সহ র‌্যাব ফোর্সেস এর সকল কার্যক্রমে অত্র উইং শক্তিশালী ভূমিকা পালন করে আসছে। ভবিষ্যতে উদ্ভত পরিস্থিতিতে সকল ধরণের সহযোগীতা করতে উক্ত উইং বদ্ধপরিকর।