সাম্প্রতিক কার্যক্রম :
র‌্যাব-২ এর পৃথক অভিযানে রাজধানীর পল্লবী হতে কিশোর গ্যাং এর ০৮ সদস্য দেশীয় অস্ত্রসহ গ্রেফতার। ✱ র‌্যাব-১১ এর অভিযানে রূপগঞ্জ হতে ০১ কেজি গাঁজাসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ✱ চাঞ্চল্যকর “নুসরাত জাহান” হত্যা মামলার এজাহার ভুক্ত পলাতক আসামীকে রাজধানীর দারুস সালাম থানা এলাকা হতে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-২ ✱ পটুয়াখালীর গলাচিপায় র‌্যাবের হাতে ০২(দুই) কেজি গাঁজাসহ একজন গাঁজা ব্যবসায়ী গ্রেফতার। ✱ বিয়ে ও চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে আটকে রেখে জোর পূর্বক ধর্ষণ করার অপরাধে ০৪ জন ধর্ষণকারীকে আটক করেছে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম। ✱ র‌্যাব ৯ এর অভযিানে এসএমপরি কোতোয়ালী থানা এলাকা থকেে ইয়াবাসহ পশোদার মাদক কারবারি গ্রফেতার। ✱ র‌্যাব ৯ এর অভিযানে মৌলভীবাজার জেলার রাজনগর থানা এলাকা থেকে গাঁজাসহ পেশাদার মাদক কারবারি গ্রেফতার। ✱ আন্তর্জাতিক মানের বিজ্ঞানীর ভূয়া পরিচয়ে স্ব—উদ্ভাবিত জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব—প্রতিকার, পাওয়ার প্ল্যান্ট প্রজেক্ট, করোনা প্রতিরোধ ব্যবস্থা ও অন্যান্য প্রজেক্ট বাস্তবায়নের নামে কোটি কোটি টাকা ও জমি আত্মসাতকারী চক্রের মূলহোতা সাইফুল ইসলাম @বিজ্ঞনী সাইফুল @সায়েন্টিস্ট সাইফুল সহ ১৬ জনকে ঢাকা ও টাঙ্গাইল এর বিভিন্ন স্থান থেকে অস্ত্র ও মাদকসহ গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। ✱ র‌্যাবের অভিযানে ঢাকার দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ হতে অপহৃত হওয়া ভিকটিম উদ্ধার ও ০৭ অপহরণকারী গ্রেফতার। ✱ র‌্যাব ৯ এর অভিযানে সুনামগঞ্জ জেলার সদর থানা এলাকা থেকে বিদেশী মদসহ পেশাদার মাদক কারবারি গ্রেফতার। ✱

র‌্যাবের অভিযানে রাজধানীর পল্লবী থেকে সাভার থানার চাঞ্চল্যকর ডাকাতি মামলার মূলহোতাকে বিদেশি পিস্তল ও গুলিসহ গ্রেফতার।

প্রকাশের তারিখ : ০৯-১১-২০২০

    ০৮/১১/২০২০ তারিখ ১২.৫০ ঘটিকায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-৪ এর একটি আভিযানিক দল রাজধানীর পল্লবী থানাধীন বাউনিয়াবাধ এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে অবৈধ অস্ত্রধারী এবং আন্তঃ জেলা ডাকাত দলের প্রধান গোলাম মোস্তফা শাহীন ওরফে মোশারফ (৫০) জেলা-বরগুনা’কে ০১টি বিদেশী পিস্তল, ০১টি ম্যাগজিন, ০১ রাউন্ড গুলি, ০৩ টি মোবাইল ফোন এবং ০১ টি ইয়ামাহা এফজেড-এস মোটরসাইকেলসহ গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

   প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় ডাকাতি, অবৈধ অস্ত্র, দস্যূতা এবং হত্যাসহ নিয়মিত মামলা রয়েছে। সে ‘‘কোম্পানী’’ নামে একটি আন্তঃ জেলা ডাকাত দল গঠন করে এরই মূল হোতা হিসেবে ঢাকাসহ আশ-পাশের জেলায় ডাকাতি করে আসছিলো। পূর্বের অভিজ্ঞতা থেকেই গ্রেফতার এড়াতে দলের প্রত্যেক সদস্যকে সে প্রশিক্ষন দিত। টার্গেট বাছাই করা থেকে শুরু করে অস্ত্রের যোগান সবই দিতো সে নিজেই আর বাকীদের কাজ ছিলো তার নির্দেশ অনুযায়ী মানুষকে আক্রমণ করা। এজন্য সে নিজের মটর সাইকেল ও প্রাইভেটকার ডাকাতির সময় ব্যবহার করে। জিজ্ঞাসাবাদে আরো জানা যায়, দুমাস আগে জামিনে বের হয়ে পুনরায় ডাকাত দল গঠন করে ডাকাতি শুরু করে এবং সে গত ২৮ অক্টোবর, ২০২০ আমিনবাজার ভাকুর্তায় ইতালি প্রবাসীর ৫ লাখ ৭০ হাজার টাকার ডাকাতির মূল পরিকল্পনাকারী।

 এই দলের সদস্য সংখ্যা ১০-১২ জন যাদের ৩ জনকে গত ০৭ নভেম্বর একটি বিশেষ অভিযানে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে সাভারের বিরুলিয়া থেকে অস্ত্রসহ আটক করে র‌্যাব।