সাম্প্রতিক কার্যক্রম :
র‌্যাবের অভিযানে ঃ বুড়িগঙ্গা নদীতে লঞ্চ ডুবির ঘটনায় অভিযুক্ত ময়ূর-০২ লঞ্চ এর মাষ্টার গ্রেফতার । ✱ র‌্যাবের অভিযানে ঢাকা মহানগরীর শাহবাগ থানা এলাকা হতে ০১টি বিদেশী পিস্তল, ০১ রাউন্ড গুলি ও ০১টি ম্যাগাজিনসহ ০১ জন কুখ্যাত সন্ত্রাসী গ্রেফতার। ✱ র‌্যাবের অভিযানে ময়মনসিংহ জেলার মুক্তাগাছা থানাধীন কুড়িপাড়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে বিপুল পরিমান উগ্রবাদী বই ও লিফলেটসহ ০৫(পাঁচ) জন নিষিদ্ধ ঘোষিত জেএমবি(জামায়াতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশ )এর সক্রিয় সদস্য আটক। ✱ র‌্যাব-৮, বরিশাল এর অভিযানে ০১(এক) জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার। ✱ র‌্যাবের অভিযানে রাজধানীর আদাবর থানা এলাকা হতে ১১ হাজার পিস ইয়াবাসহ ০২ (দুই) জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। ✱ র‌্যাবের অভিযানে ঢাকা মহানগরীর ডেমরা এলাকা হতে আর্ন্তজাতিক অপহরণকারী চক্রের বাংলাদেশী সহযোগী ০১ জন সদস্য গ্রেফতার। ✱ র‌্যাবের অভিযানে রাজধানীর রামপুরা এলাকায় সমীর ঘোষ এর তৈরীকৃত ‘ঘি’ বাঘাবাড়ী ‘ঘি’ প্রস্তুতকারী ও লেবেল ব্যবহার করে বিক্রয় করার অপরাধে ০১ জনকে ১০,০০,০০০/- টাকা জরিমানা। ✱ র‌্যাবের অভিযানে রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থানাধীন মাতুয়াইল এলাকা হতে শিশু সন্তানকে হত্যাকারী বাবাসহ ০২ জন গ্রেফতার \ ✱ গাজীপুর কালিয়াকৈরে মাইক্রোবাসে গুলি করে ইনক্রেডিবল ফ্যাশনস্ লিঃ গার্মেন্টস এর প্রায় ৮০ লক্ষ ২২ হাজার টাকা ডাকাতির মূল পরিকল্পনাকারী সহ ০৫ জন’কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব \ নগদ ৩০ লক্ষ ৬৮ হাজার টাকা, ১১০০ ইউএস ডলার, ডাকাতির কাজে ব্যবহƒত মোটর সাইকেল, গাড়ি এবং অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার। ✱ গাজীপুর কালিয়াকৈরে মাইক্রোবাসে গুলি করে ইনক্রেডিবল ফ্যাশনস্ লিঃ গার্মেন্টস এর প্রায় ৮০ লক্ষ ২২ হাজার টাকা ডাকাতির মূল পরিকল্পনাকারী সহ ০৫ জন’কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব \ নগদ ৩০ লক্ষ ৬৮ হাজার টাকা, ১১০০ ইউএস ডলার, ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত মোটর সাইকেল, গাড়ি এবং অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার। ✱

র‌্যাবের অভিযানে দেহের অভ্যন্তরে মাদক দ্রব্য বহনকারী ০৩ নারীসহ ০৮ মাদক ব্যবসায়ী আটক ॥ ১৫,০৮০ পিস ইয়াবা উদ্ধার।

প্রকাশের তারিখ : ২২-০২-২০২০

২১ ফেব্রæয়ারি ২০২০ তারিখ রাত আনুমানিক  ০৩০০ ঘটিকার সময় র‌্যাব-১০ এর উপ-অধিনায়ক মেজর শাহরিয়ার জিয়াউর রহমান, পিএসসি এর নেতৃত্বে নারায়ণগঞ্জের বন্দর থানাধীন মদনপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে অভিনব কায়দায় পেটের ভিতরে এবং যোনীপথে ইয়াবা পাচারকালে ০৪ জনকে আটক করা হয়। ধৃত ব্যক্তিদের নাম ১। মোঃ বাচ্চু শেখ(২৪), ২। মোছাঃ মালা বেগম(৩৩), স্বামী - মোঃ পারভেজ, উভয় পিতা- মোঃ তসলিম শেখ, সাং- ঘোটটিয়া, থানা- কুমারখালি, জেলা- কুষ্টিয়া, ৩। মোঃ লিপি বেগম(৩৭), স্বামী - মোঃ ইসলাম, পিতা- মৃত আবুল শিকদার,সাং- কুশিয়ারা পশ্চিম পাড়া,থানা- বন্দর, জেলা- নারায়ণগঞ্জ, ৪। খাদিজা বেগম(৫৮), স্বামী - মৃত শহীদ হোসেন, পিতা- মোঃ সুলতান,  সাং - শহীদনগর, থানা+ জেলা- নারায়ণগঞ্জ বলে জানা যায়। 

গোপন তথ্যের ভিত্তিতে জানা যায়, কক্সবাজার হতে বাস যোগে ০৪ জন মাদক ব্যবসায়ী মাদক দ্রব্য “ইয়াবা ট্যাবলেট” নিয়ে ঢাকা আসবেন। তার ভিত্তিতে নারায়ণগঞ্জের বন্দর থানাধীন মদনপুর বাসস্ট্যান্ডে ০৩ জন মহিলাসহ মোট ০৪ জনকে আটক করা হয়। কিন্তু ধৃত ০৪ জন মাদক বহনের কথা অস্বীকার করলে তাদেরকে পার্শ্ববর্তী দি-বারাকাহ হাসপাতালে নিয়ে এক্সরে করার পর পেটে এবং গোপনাঙ্গে প্রচুর মাদক দ্রব্যের অস্তিত্ব পাওয়া যায়। এ পর্যায়ে আসামীগণ তাদের দেহের অভ্যন্তরে থাকা ইয়াবার কথা স্বীকার করেন। তাদের দেহ হতে মোট ৯,৭০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। এর মধ্যে ১। মোঃ বাচ্চু শেখ(২৪) এর পেট থেকে ৪,০০০ পিস, ২। মোছাঃ মালা বেগম(৩৩) এর পেট ও গোপনাঙ্গ থেকে ২২০০ পিস, ৩। মোছাঃ লিপি বেগম(৩৭) এর পেট ও গোপনাঙ্গ থেকে ১,৫০০ পিস এবং ৪। খাদিজা বেগম(৫৮) এর ভ্যানিটি ব্যাগ হতে ২,০০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। এই চক্রটি কক্সবাজার হতে নিজেরা মাদকদ্রব্য আমদানী করে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ ও পার্শ্ববর্তী জেলা সমূহে মাদকের একটি বড় অংশ নিয়ন্ত্রণ করত। 

পরবর্তীতে তাদের তথ্যের ভিত্তিতে মাদক বিক্রির শাখা-প্রশাখা সমূলে ধ্বংসের জন্য র‌্যাব-১০ ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন জায়াগায় অভিযান পরিচালনা করে। এরই প্রেক্ষিতে ১নং আসামি মোঃ বাচ্চু শেখ এর বাসা দক্ষিণ নলুয়া, নারায়ণগঞ্জ সদর এবং ২ নং আসামি মোছাঃ মালা বেগম এর আমিন আবাসিক এলাকা, থানা- বন্দর, জেলা - নারায়ণগঞ্জ এর বাসায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। এছাড়াও নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন মৌচাক বাসস্ট্যান্ড থেকে মোঃ বিল্লাল হোসেন (৩৩), পিতা - চাঁন মিয়া, মোহাম্মদপুর, থানা- ফতুল্লা, জেলা- নারায়ণগঞ্জ; রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থানাধীন ধলপুর এলাকা থেকে মোঃ রিয়াজুল ইসলাম(৩১), পিতা- মোঃ নজরুল শেখ, সাং - রাজাপুর, থানা ও জেলা - রাজবাড়ি; চকবাজার থানাধীন পূর্ব ইসলামবাগ হতে মোঃ শামীম (৩৬), পিতা মোঃ শামসুল হক, ইসলামবাগ, থানা- চকবাজার এবং ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানাধীন কালীগঞ্জ এলাকা থেকে মোঃ জহিরুল ইসলাম (৪৮), পিতা- মোঃ ফজলুর রহমান, সাং- আসন্দি, থানা- লক্ষীপুর, জেলা- লক্ষীপুর’দেরকে ইয়াবাসহ আটক করা হয়।

এসকল অভিযান হতে ৫,৩৮০ পিস ইয়াবাসহ সর্বমোট ১৫,০৮০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয় এবং মাদকের নিয়ন্ত্রনকারী ডিলার, মধ্যম ব্যবসায়ী এবং খুচরা বিক্রেতাদের আটক করে মাদক ব্যবসা সমূলে ধ্বংস করার প্রয়াস নেয়া হয়। এসময় তাদের নিকট থেকে ০৫টি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। আটককৃত ব্যক্তিরা পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী, যাদের অনেকের বিরুদ্ধে একাধিক মাদক মামলা রয়েছে। তারা দীর্ঘদিন ধরে অভিনব কায়দায় পেটের ভিতর এবং গোপনাঙ্গে ইয়াবা ঢুকিয়ে কক্সবাজারের টেকনাফ থেকে বাসযোগে ঢাকায় নিয়ে আসত। 
 

আরও সাম্প্রতিক কার্যক্রম