সাম্প্রতিক কার্যক্রম :
র‌্যাব-২ এর পৃথক অভিযানে রাজধানীর পল্লবী হতে কিশোর গ্যাং এর ০৮ সদস্য দেশীয় অস্ত্রসহ গ্রেফতার। ✱ র‌্যাব-১১ এর অভিযানে রূপগঞ্জ হতে ০১ কেজি গাঁজাসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ✱ চাঞ্চল্যকর “নুসরাত জাহান” হত্যা মামলার এজাহার ভুক্ত পলাতক আসামীকে রাজধানীর দারুস সালাম থানা এলাকা হতে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-২ ✱ পটুয়াখালীর গলাচিপায় র‌্যাবের হাতে ০২(দুই) কেজি গাঁজাসহ একজন গাঁজা ব্যবসায়ী গ্রেফতার। ✱ বিয়ে ও চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে আটকে রেখে জোর পূর্বক ধর্ষণ করার অপরাধে ০৪ জন ধর্ষণকারীকে আটক করেছে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম। ✱ র‌্যাব ৯ এর অভযিানে এসএমপরি কোতোয়ালী থানা এলাকা থকেে ইয়াবাসহ পশোদার মাদক কারবারি গ্রফেতার। ✱ র‌্যাব ৯ এর অভিযানে মৌলভীবাজার জেলার রাজনগর থানা এলাকা থেকে গাঁজাসহ পেশাদার মাদক কারবারি গ্রেফতার। ✱ আন্তর্জাতিক মানের বিজ্ঞানীর ভূয়া পরিচয়ে স্ব—উদ্ভাবিত জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব—প্রতিকার, পাওয়ার প্ল্যান্ট প্রজেক্ট, করোনা প্রতিরোধ ব্যবস্থা ও অন্যান্য প্রজেক্ট বাস্তবায়নের নামে কোটি কোটি টাকা ও জমি আত্মসাতকারী চক্রের মূলহোতা সাইফুল ইসলাম @বিজ্ঞনী সাইফুল @সায়েন্টিস্ট সাইফুল সহ ১৬ জনকে ঢাকা ও টাঙ্গাইল এর বিভিন্ন স্থান থেকে অস্ত্র ও মাদকসহ গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। ✱ র‌্যাবের অভিযানে ঢাকার দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ হতে অপহৃত হওয়া ভিকটিম উদ্ধার ও ০৭ অপহরণকারী গ্রেফতার। ✱ র‌্যাব ৯ এর অভিযানে সুনামগঞ্জ জেলার সদর থানা এলাকা থেকে বিদেশী মদসহ পেশাদার মাদক কারবারি গ্রেফতার। ✱

র‌্যাবের অভিযানে চট্টগ্রাম জেলার হাটহাজারী থানাধীন চন্দ্রাবিল এলাকায় চাঞ্চল্যকর লেগুনা চালক নাজমুল হত্যা মামলার অন্যতম প্রধান আসামী ইমন (২৩) কে কক্সবাজারের সেন্টমার্টিন দ্বীপ থেকে গ্রেফতার।

প্রকাশের তারিখ : ১৯-১১-২০২০

গত ১১ নভেম্বর ২০২০ ইং তারিখ ভিকটিম নাজমুল এর পিতা মজনু শেখ র‌্যাব-৭ এ লিখিত অভিযোগ করেন যে, তার পুত্র লেগুনা চালক মোঃ নাজমুল শেখ (২২)'কে পূর্ব শত্রুতার বশবর্তী হয়ে মোঃ ইমন (২৩) ও তার ০৩ জন সহযোগী মিলে অপহরণ করেছে। পরবর্তীতে আসামিরা লেগুনাচালক নাজমুলকে গলাকেটে হত্যা করে এবং লাশ গুম করার উদ্দেশ্যে ডোবার পানিতে ফেলে দেয়। পরবর্তীতে মজনু শেখ বাদী হয়ে হাটহাজারী মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা (নং-১৪, তারিখ- ১১/১১/২০২০ ইং) দায়ের করেন। উক্ত ঘটনায় র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম ছায়া তদন্ত শুরু করে। তদন্তের একপর্যায়ে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারে যে, উপরোল্লিখিত হত্যা মামলার ২নং আসামি মোঃ ইমন কক্সবাজার জেলার টেকনাফ থানাধীন সেন্টমার্টিন এলাকার সি ভিউ হোটেলে অবস্থান করছে। উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে গত ১৮ নভেম্বর ২০২০ ইং তারিখ ১২৩০ ঘটিকায় র‌্যাব-৭ এর একটি আভিযানিক দল বর্ণিত স্থানে অভিযান পরিচালনা করে আসামী মোঃ ইমন (২৩), পিতা- মোঃ সোলেমান, সাং-বাতাবাড়িয়া, থানা- লাকসাম, জেলা- কুমিল্লা, বর্তমান ঠিকানা- আব্বুর কলোনী, নজুমিয়ারহাট, থানা-হাটহাজারী, জেলা- চট্টগ্রাম’কে আটক করে। পরবর্তীতে উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে আটককৃত আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করে যে, সে হাটহাজারী থানার উপরোল্লিখিত হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত পলাতক আসামি।