সাম্প্রতিক কার্যক্রম :
রাজধানীর চকবাজার ও কামরাঙ্গীরচর এলাকায় নকল কসমেটিক্স ও অস্বাস্থ্যকর খাবার উৎপাদন, মজুদ ও বিক্রি করায় র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতে ১৫ লক্ষাধিক টাকা জরিমানা। ✱ ঢাকা হতে জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জগামী কমিউটার ট্রেনে চাঞ্চল্যকর খুনসহ ডাকাতির ঘটনায় জড়িত ০৫ জন পেশাদার ডাকাতকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৪। ✱ ঢাকা জেলার আশুলিয়া হতে ১২ বছরের শিশু অপহরণের ০৪ ঘন্টা পর ভূক্তভোগীকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব-৪; অপহরণকারী চক্রের ১১ সদস্য মাদক ও দেশীয় অস্ত্রসহ গ্রেফতার। ✱ র‌্যাব-৯, সিলেট এবং এ্যাক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট (সহকারী কমিশনার ভূমি), হবিগঞ্জ এর যৌথ অভিযানে হবিগঞ্জ জেলার হবিগঞ্জ সদর থানাধীন এলাকার ০১ টি বে-সরকারী হাসপাতালে অভিযান পরিচালনা করে = ৩৫,০০০/- টাকা জরিমানা আদায়। ✱ টিকটক চক্রের খপ্পরে পড়ে অপহৃত ৮ম শ্রেণীর ছাত্রীকে ময়মনসিংহ জেলার গফরগাঁও থেকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব-৪ঃ অপহরনকারী চক্রের ০১ সদস্য গ্রেফতার। ✱ র‌্যাব-৯, সিলেট এবং জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, সিলেট এর যৌথ অভিযানে সিলেট জেলার জৈন্তাপুর থানাধীন এলাকায় “প্রদত্ত মূল্যের বিনিময়ে প্রতিশ্রæত পণ্য বা সেবা প্রদান না করিবার অপরাধে” ০৫ টি প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা। ✱ কক্সবাজার হোটেলে চাঞ্চল্যকর নারী হত্যার প্রধান আসামী সাগরকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। ✱ র‌্যাব-১১ এর পৃথক অভিযানে রূপগঞ্জ হতে ০১ জন মাদক ব্যবসায়ী এবং ডাকাতি মামলার ০১ জন পলাতক আসামী গ্রেফতার। ✱ র‌্যাবের অভিযানে ঢাকার দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ এলাকা হতে ২০ লক্ষ টাকা মূল্যের হেরোইনসহ ০২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার। ✱ র‌্যাব-৯ এর অভিযানে সিলেট জেলার জকিগঞ্জ থানাধীন এলাকা হইতে ৭৫০ পিস ইয়াবা উদ্ধার। ✱

র‌্যাব-২ এর অভিযানে রাজধানীর আদাবর থানা এলাকা হতে বালিশের ভিতরে লুকিয়ে আনা ৬০ লক্ষ টাকা মূল্যের হেরোইনসহ ০১ জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

প্রকাশের তারিখ : ১২-০৫-২০২১

র‌্যাব-২ এর আভিযানিক দল গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে জানতে পারে, রাজধানীর আদাবর থানা এলাকায় কতিপয় মাদক কারবারী চক্রের সদস্য মাদকের একটি বড় চালান হস্তান্তরের উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে। এমন গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-২ এর আভিযানিক দল ১২/০৫/২১ ইং তারিখ ০০:০৫ ঘটিকায় রাজধানীর আদাবর থানাধীন বাইতুল আমান হাউজিং সোসাইটি এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে সন্দেহভাজন আন্তঃ জেলা মাদক কারবারী চক্রের সদস্য ক। মোঃ সোহেল (২৭), পিতা- মোঃ আহাজার আলী, রাজশাহী’কে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ ও তল্লাশীকালে সে মাদকের কথা অস্বীকার করে এবং তার সাথে থাকা বিছানাপত্র তল্লাশি করে বালিশের ভিতরে অভিনব কায়দায় লুকিয়ে আনা ৬০ লক্ষ টাকা মূল্যের ৬০০ গ্রাম হেরোইন উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক অনুসন্ধান ও আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে বিছানাপত্র নিয়ে গ্রামের বাড়িতে চলে যাচ্ছে এমন ছদ্মবেশের আড়ালে মাদক পরিবহন করেছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর নজর এড়াতে। আইন শৃঙ্খলা বাহিনী যাতে সন্দেহ না করে এবং সন্দেহ করলেও যাতে তল্লাশি করে কিছুই না পায় মূলত সে জন্যই বালিশে ভিতরে অভিনব কায়দায় মাদক বহন করে নিয়ে আসছিল। জিজ্ঞাসাবাদে আরো জানায়, সে দীর্ঘ দিন ধরে দেশের বিভিন্ন সীমান্ত এলাকা হতে মাদক বহন করে নিয়ে আসে এবং তা রাজধানীর বিভিন্ন মাদক কারবারীদের নিকট হস্তান্তর করে আসছিলো। প্রতিবার মাদক বহনের ক্ষেত্রে সে বিভিন্ন নতুন নতুন কৌশল অবলম্বন করে থাকে বলেও জানায়।

আমাদের অন্যান্য অর্জনসমূহ