অপরাধী দমন ও শান্তি প্রতিষ্ঠায় আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ

র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)

সাম্প্রতিক কার্যক্রম :
র‌্যাব-১১ এর অভিযানে রূপগঞ্জ হতে ০১ কেজি গাঁজাসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ✱ রাজধানীর আগারগাঁও পাসপোর্ট অফিসের সামনে থেকে দালাল চক্রের সক্রিয় ১৩(তের) জনকে আটক করে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদÐ ও জরিমানা করে র‌্যাব-২ এর ভ্রাম্যমান আদালত। ✱ র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতে মিডফোর্ড হাসপাতালের অবৈধ দালাল চক্রের ০৯ সদস্যকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড প্রদান এবং ২ জনের বিরূদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা। ✱ র‌্যাব-৯ এবং পরিবেশ অধিদপ্তর (টাস্কফোর্স), সুনামগঞ্জ এর যৌথ অভিযানে সুনামগঞ্জ জেলার সদর থানা এলাকায় ০২ জন ব্যক্তিকে ৭৯,৩৫,০০০/-(ঊনআশি লক্ষ পঁয়ত্রিশ হাজার) টাকা জরিমানা। ✱ র‌্যাব-১১ এর অভিযানে সিদ্ধিরগঞ্জ হতে সংঘবদ্ধ চোরাই চক্রের ০৩ সক্রিয় সদস্য গ্রেফতার ✱ ময়মনসিংহ জেলার গৌরীপুর থানার ডাকাতি মামলার সাজাপ্রাপ্ত ফেরারী আসামীকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৪, সিপিসি-৩, ভৈরব ক্যাম্প। ✱ র‌্যাব-৮, সিপিসি-২, ফরিদপুর ক্যাম্প কর্তৃক রাজবাড়ী জেলার রাজবাড়ী সদর থানা হতে ইয়াবাসহ ০১ জন মাদক ব্যবসায়ী আটক ✱ রাজধানীর শনির আখরা থেকে কিশোর গ্যাং রক কিং গ্রুপের ০৫ জনকে গ্রেফতার করছে র‌্যাব। ✱ ময়মনসিংহ জেলার নান্দাইল থানাধীন পুরাতন বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে নকল স্ট্যাম্পসহ ০২ জনকে গ্রেফতার করছে র‌্যাব—১৪। ✱ রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকায় অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে মাছ সংরক্ষণ, বিক্রয় ও বাজারজাত করায় র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতে ০৫ লক্ষ টাকা জরিমানা। ✱

চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন, বিপিএম, পিপিএম

মহাপরিচালক, র‌্যাব ফোর্সেস
র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)

আমাদের জানুন

বাংলাদেশ একটি উন্নয়নশীল দেশ। আমাদের উন্নতির পথে যে সকল বাধা বিপত্তি রয়েছে তার মধ্যে, অস্থিতিশীল আইন শৃংখলা পরিস্থিতি অন্যতম। এরকম একটি পরিস্থিতিতে যখন সমাজের প্রত্যেকটা মানুষ অনিশ্চিয়তার মাঝে ভুগছিল, তখন পুলিশ বাহিনীর কার্যক্রমকে আরো গতিশীল ও কার্যকর করার লক্ষ্যে সরকার একটি এলিট ফোর্স গঠনের পরিকল্পনা করে। ক্রমান্বয়ে সভা-সমন্বয়, আলোচনা ও গবেষনার পর সরকার, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তত্ত্ববধানে  বাংলাদেশ পুলিশের অধীনে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন সংক্ষেপে র‌্যাব ফোর্সেস নামে একটি এলিট ফোর্স গঠনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন। গত ২৬ মার্চ ২০০৪ তারিখে জাতীয় স্বাধীনতা দিবস প্যারেডে অংশ গ্রহনের মাধ্যমে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) জনসাধারনের সামনে আত্মপ্রকাশ করে। জন্মের পরপরই এই ফোর্সের ব্যাটালিয়নসমূহ সাংগঠনিক কর্মকান্ডে ব্যস্ত থাকে এবং স্ব স্ব এলাকা সম্পর্কে গোয়েন্দা তথ্য সংগ্রহ শুরু করে। এর মাঝে প্রথম অপারেশনাল দায়িত্ব পায় ১৪ এপ্রিল ২০০৪ তারিখে পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠান-রমনা বটমুলে নিরাপত্তা বিধান করার জন্য । এর পর আবার র‌্যাব মূলত তথ্য সংগ্রহের কাজে নিয়োজিত ছিল। গত ২১ জুন ২০০৪ থেকে র‌্যাব ফোর্সেস পূর্ণাঙ্গভাবে অপারেশনাল কার্যক্রম শুরু করে।

র‌্যাবের দায়িত্ব সমূহ

  • অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা দায়িত্ব।
  • অবৈধ অস্ত্র, গোলাবারুদ, বিস্ফোরক এবং এ জাতীয় অন্যান্য বস্তু উদ্ধার।
  • অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার।
  • আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় অন্যান্য আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে সহায়তা করা।
  • সন্ত্রাস ও সন্ত্রাসী সম্পর্কে গোয়েন্দা তথ্য সংগ্রহ করা।
  • সরকার নির্দেশিত যে কোন অপরাধের তদন্ত কার্যক্রম পরিচালনা করা।
  • সরকার নির্দেশিত যে কোন জাতীয় দায়িত্ব পালন করা।

র‌্যাব কর্তৃক প্রদত্ত পরামর্শ

       পরিবার ও সমাজকে নিরাপদ রাখতে আপনাদের যা করণীয়

  • জমি জমা বা টাকা-পয়সা সংক্রান্ত কোন অভিযোগ র‌্যাব কর্তৃক গ্রহণ করা হয় না ।
  • ব্যক্তিগত বা পারিবারিক কোন সমস্যা র‌্যাব কর্তৃক গ্রহণ করা হয় না।
  • কোন অভিযোগ করার পূর্বে আপনার এলাকার জন্য দায়িত্বপূর্ন র‌্যাব ব্যাটালিয়ন/ক্যাম্প সম্পর্কে জানুন ও যথাযথ র‌্যাব ব্যাটালিয়ন/ক্যাম্পে অভিযোগ করুন।
  • আপনার এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী, অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীদের সম্পর্কে র‌্যাব কে তথ্য প্রদান করে র‌্যাবকে সহযোগীতা করুন । আপনার পরিচয় সম্পূর্ন গোপন রাখা হবে।
  • বেশী করে গাছ লাগান অক্সিজেনের অভাব তাড়ান।
  • ছোট ছোট ছেলে-মেয়েদের আগুন নিয়ে খেলতে দিবেন না।
  • যাত্রা পথে অপরিচিত লোকের দেওয়া বিছু খাবেন না । ভ্রমণকালে সহযোগী বা অন্য কাহারো নিকট হইতে পান, বিড়ি, সিগারেট, চা বা অন্য কোন পানীয় খাওয়া/গ্রহণ করা হইতে বিরত থাকা আবশ্যক।

টিভিসি

সাম্প্রতিক কার্যক্রম

র‌্যাব-১১ এর অভিযানে রূপগঞ্জ হতে ০১ কেজি গাঁজাসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

    গোপন সূত্রে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে অদ্য ১৫ জুন ২০২১ খ্রিষ্টাব্দ সকাল ১১.৫০ ঘটিকায় নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ থানাধীন বটেরচারা এলাকায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের উপর র‌্যাব-১১, সিপিএসসি কর্তৃক অভিযান পরিচালনা করে ০২ জন মাদক ব্যবসায়ী’কে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত মাদক ব্যবসায়ীরা হলোঃ ১। মোঃ বাদল ভ‚ঁইয়া (৩৮) ও ২। মোঃ শাওন মোল্লা (৩২)। উক্ত অভিযানে গ্রেফতারকৃত আসামীদের হেফাজত হতে নিষিদ্ধ মাদকদ্রব্য ১ কেজি গাঁজা ও মাদক ব্যবসার কাজে ব্যবহৃত ০২টি মোবাইল উদ্ধার করা হয়।       প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায়, গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ বাদল ভ‚ঁইয়া (৩৮) নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ থানাধীন আদুরিয়া কেশরাবো এলাকার মৃত দিলু ভ‚ঁইয়ার ছেলে এবং অপর আসামী মোঃ শাওন মোল্লা (৩২) একই থানার মাহনা এলাকার মোঃ আব্দুল হক মোল্লার ছেলে। আর্থিকভাবে লাভবান হওয়ার জন্য তারা পরষ্পর যোগসাজশে দীর্ঘদিন যাবৎ নিষিদ্ধ মাদকদ্রব্য গাঁজা ক্রয়-বিক্রয় ও সরবরাহ করে আসছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত আসামীরা স্বীকার করে যে, পরষ্পর যোগসাজশে তারা দীর্ঘদিন যাবৎ কুমিল্লা জেলা হতে বিশেষ কৌশলে নিষিদ্ধ মাদকদ্রব্য গাঁজা সংগ্রহ করে এবং অভিনব কৌশলে পরিবহন করে নিয়ে এসে ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ ও নরসিংদীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ক্রয়-বিক্রয় ও সরবরাহ করে থাকে। 

রাজধানীর আগারগাঁও পাসপোর্ট অফিসের সামনে থেকে দালাল চক্রের সক্রিয় ১৩(তের) জনকে আটক করে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদÐ ও জরিমানা করে র‌্যাব-২ এর ভ্রাম্যমান আদালত।

         রাজধানীর আগারগাঁও পাসপোর্ট অফিসের সামনে থেকে দালাল চক্রের সক্রিয় ০৬ (ছয়) সদস্যকে আটক করে ১ মাস করে কারাদন্ড  ও ৭ (সাত) জনকে অর্থকারাদন্ড  দিয়েছে র‌্যাব-২ এর ভ্রাম্যমান আদালত। অদ্য ১৪/০৬/২০২১ খ্রিঃ তারিখ ১০.৪৫ হতে ১৩.৪৫ ঘটিকা পর্যন্ত র‌্যাব-২ এর উদ্যোগে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন র‌্যাব এর নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট জনাব আনিছুর রহমান ও র‌্যাব-২ এর সিপিসি-২ কোম্পানী কমান্ডার মেজর মির্জা আহমদ সাইফুর রহমান, পিপিএম।      দীর্ঘদিন থেকে একটি সংঘবদ্ধ দালালচক্র অল্প সময়ে পাসপোর্ট করে দেয়ার প্রলোভন দেখানো সহ বিভিন্ন কৌশলে জনসাধারণের নিকট হতে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিয়ে পাসপোর্ট প্রদান না করে প্রতারণা করে আসছিল। এমনকি পাসপোর্ট ফি জমা দেয়ার কথা বলে টাকা নিয়ে পালিয়ে যাওয়া, ভুয়া সিল, সত্যয়ন, জাল ব্যাংক ভাউচার প্রদান, ভুয়া চিঠিপত্র তৈরী করা, ভুয়া পাসপোর্ট প্রদান করে জনসাধারণকে হয়রানি করে আসছে। অদ্য অভিযান পরিচলনাকালে সে সমস্ত অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়। র‌্যাবের বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জনাব আনিছুর রহমান আটককৃতদের স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে দোষী সাব্যস্ত করে দালাল চক্রের ০৬ (ছয়) সক্রিয় সদস্যকে ১ মাস করে কারাদন্ড ও ৭ জনকে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা প্রদান করেন। ৩।     ভবিষ্যতেও র‌্যাব-২ কর্তৃক এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।  আটককৃত ব্যক্তিদের নাম-ঠিকানা ঃ         ক্র/নং    গ্রেফতারকৃত আসামীর নাম ও ঠিকানা ১.        তুহিন শেখ(৫৫), পিতা-মুজাফ্ফার শেখ, থানা-সদর, জেলা-গোপালগঞ্জ।  ২.        মোঃ সোহাগ(৩৫), পিতা-নুরুজ্জামান, শেরেবাংলানগর, ঢাকা। ৩.        মোঃ মেহেদী হাসান হান্নান(৩৮), পিতা-আঃ গফ্ফার, শেরেবাংলা নগর, ঢাকা। ৪.        মোঃ নুরুজ্জামান(৪০), পিতা-আব্দুল সোহরাব, থানা-কাউনিয়া, জেলা-পিরোজপুর। ৫.        মোঃ সেলিম(৪০), পিতা-আঃ হামিদ, থানা-বাঞ্চারামপুর, জেলা-বি-বাড়িয়া।  ৬.        মোঃ ইমদাদ হোসেন(৩২), পিতা-মৃত বকুল সর্দার, থানা-গোপালগঞ্জ সদর, জেলা-গোপালগঞ্জ।  ৭.        মোঃ সুমন(২০), পিতা-মোঃ জাকির হোসেন, শেরেবাংলা নগর, ঢাকা ৮.        আবুল খায়ের(৩৮), পিতা-মোতালেব মোল্যা, থানা-কোটালিপাড়া, জেলা-গোপালগঞ্জ।  ৯.        মোঃ জসিম উদ্দিন(৩৪), পিতা-জালাল আহম্মেদ, থানা-রায়পুর, জেলা-লক্ষিপুর। ১০.        মোঃ সুমন কাজী(৪০), পিতা-মৃত কাজি আলী আকবর, থানা-কালকিনি, জেলা-মাদারীপুর। ১১.        মোঃ দারোগালী(৪৫), পিতা-মোঃ আব্দুল হক, থানা-কাউখালি, জেলা-পিরোজপুর। ১২.        খোরশেদ আলী(৩০), পিতা-মোবারক আলী, থানা-মুলাদী, জেলা-বরিশাল।  ১৩.        মোঃ সোহেল রানা(৩৯), পিতা-আব্দুল মালেক, থানা-কেরানীগঞ্জ, জেলা-ঢাকা। 

র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতে মিডফোর্ড হাসপাতালের অবৈধ দালাল চক্রের ০৯ সদস্যকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড প্রদান এবং ২ জনের বিরূদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা।

অদ্য ১৩ জুন ২০২১ খ্রিঃ তারিখ ১০:০০ ঘটিকা হতে ১৯:০০ ঘটিকা পর্যন্ত র‌্যাব এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জনাব মোঃ আক্তারুজ্জামান ও র‌্যাব-১০ এর সমন্বয়ে একটি আভিযানিক দল রাজধানী ঢাকার কোতয়ালী থানাধীন স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল হাসপাতাল এলাকায় মোবাইল কোর্ট কার্যক্রম সম্পন্ন করেন। এসময় ভ্রাম্যমাণ আদালত স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল হাসপাতলে আগত রোগীদের বিভিন্নভাবে হয়রানিসহ রোগীদের উন্নত চিকিৎসার নামে তাদের ব্যক্তিগত লাভের আশায় প্রাইভেট হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার অপরাধে দালাল চক্রের ০৯ সদস্যের ১। মোঃ মানিক (৪০)কে  ০১ মাস, ২। মোঃ বেলাল হোসেইন (৩০)কে ০১ মাস, ৩। মো। সাইফুল (২৬)কে ২০ দিন, ৪। মোঃ হাসান (৩১)কে ১৫ দিন, ৫। মোঃ সুজন (৩২)কে ০১ মাস, ৬। ময়নাকে  ০৭ দিন, ৭। সাথীকে ০৭ দিন, ৮। রোকসানাকে ০৭ দিন ও ৯।  মর্জিনাকে ০৭ দিন করে কারাদন্ড প্রদান করেন। মিটফোর্ড হাসপাতালের ০২ স্টাফের (সরকারকর্মচারী) বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ প্রদান করেন।      প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায় যে, বেশ কিছুদিন যাবৎ এই অসাধু দালালরা স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল হাসপাতলে আগত রোগীদের বিভিন্নভাবে হয়রানিসহ রোগীদের উন্নত চিকিৎসার নামে তাদের ব্যক্তিগত লাভের আশায় বিভিন্ন অনুন্নত প্রাইভেট হাসপাতালে নিয়ে প্রতারনার স্বীকার করাত বলে জানা যায়।

র‌্যাব-৯ এবং পরিবেশ অধিদপ্তর (টাস্কফোর্স), সুনামগঞ্জ এর যৌথ অভিযানে সুনামগঞ্জ জেলার সদর থানা এলাকায় ০২ জন ব্যক্তিকে ৭৯,৩৫,০০০/-(ঊনআশি লক্ষ পঁয়ত্রিশ হাজার) টাকা জরিমানা।

১৪ জুন ২০২১ ইং তারিখ ১৪.০০ ঘটিকা হইতে ১৮.০০ ঘটিকা পর্যন্ত র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-৯, সিপিসি-৩ (সুনামগঞ্জ ক্যাম্পে) এর একটি আভিযানিক দল লেঃ কমান্ডার সিঞ্চন আহমেদ, এএসপি মোঃ আব্দুল­াহ এবং মোঃ রাসেল নোমান (এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্টেট, সুনামগঞ্জ, সহকারী পরিচালক, পরিবেশ অধিদপ্তর, সিলেট), ২৮ বিজিবি ব্যাটালিয়ন, সুনামগঞ্জ, বাংলাদেশ পুলিশ সদর থানা ও  জেলা প্রশাসনের প্রতিনিধির সমন্নয়ে সংঙ্গীয় ফোর্স সহ একটি মোবাইল কোর্ট অভিযান পরিচালনা করে সুনামগঞ্জ জেলার সদর থানাধীন সুরমা ও জাহাঙ্গীনগর ইউনিয়নের পূর্ব ও পশ্চিম পাড় পর্যন্ত ধোপাজান চলতি নদী হতে অবৈধভাবে বালু ও পাথর উত্তোলন করে স্তুপকৃত প্রায় ১,০০,০০০ (এক লক্ষ) ঘনফুট পাথর/সিংগেলস এবং ২,০০,০০০ (দুই লক্ষ) ঘনফুট বালু জব্দ করে ১। তারেক রহমান, পিতা- মৃত মহির উদ্দিন, সাং- পূর্ব তেঘরিয়া, থানা- সদর, জেলা- সুনামগঞ্জ’কে ৫৫,২০,০০০/- টাকা এবং ২। লুৎফর রহমান, পিতা- মোঃ আলী ফরিদ, সাং- অক্ষয়নগর, থানা- সদর, জেলা- সুনামগঞ্জদ্বয়’কে ২৪,১৫,০০০/- টাকা সর্বমোট= ৭৯,৩৫,০০০/-(ঊনআশি লক্ষ পঁয়ত্রিশ হাজার) টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। জরিমানাকৃত অর্থ রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা প্রদান করা হয়েছে।

র‌্যাব-১১ এর অভিযানে সিদ্ধিরগঞ্জ হতে সংঘবদ্ধ চোরাই চক্রের ০৩ সক্রিয় সদস্য গ্রেফতার

    গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গত ১৪ জুন ২০২১ খ্রিষ্টাব্দ রাত ২২.১০ ঘটিকায় র‌্যাব-১১, সিপিএসসি, আদমজীনগর নারায়ণগঞ্জ এর অভিযানে নারায়ণগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন চিটাগাং রোড এলাকায় সংঘবদ্ধ চোরাই চক্রের ০৩ সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলোঃ ১। মোঃ ইমরান ইসলাম (২১), ২। মোঃ শাকিল হোসেন (২২) ও ৩। মোঃ অমিত হাসান (১৮)। উক্ত অভিযানে বিভিন্ন মডেলের ০৩টি চোরাই মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।           প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায়, নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন চিটাগাং রোড এলাকায় একটি সংঘবদ্ধ চোরাই চক্রের কয়েকজন সক্রিয় সদস্য বেশ কিছুদিন যাবৎ বিভিন্ন গণপরিবহনে চলাচলরত সাধারণ যাত্রীদের নিকট হতে অভিনব কৌশলে মোবাইল, নগদ টাকাসহ বিভিন্ন গুরত্বপূর্ণ জিনিসপত্র চুরি করে আসছে। বিভিন্ন এলাকা হতে আগত গণপরিবহন চিটাগাং রোড এলাকায় যাত্রী উাঠানামার জন্য দাঁড়ালে এই চোরাই চক্রের সদস্যরা কৌশলে থামানো গাড়ীর আশেপাশে অবস্থান করতে থাকে। এই চোরাই চক্রের সদস্যরা বাসের জানালার পাশে বসে মোবাইলে কথা বলা যাত্রীদের টার্গেট করে থাকে। মোবাইল ফোনে কথা বলতে থাকা যাত্রী কিছু বুঝে উঠার আগে ওৎ পেতে থাকা চোরাই চক্রের সদস্যরা এক ঝটকায় মোবাইল চুরি করে নিয়ে চোখের পলকে দৌড়ে পালিয়ে যায়। গ্রেফতারকৃত আসামীরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করে যে, তারা সংঘবদ্ধ চোরাই চক্রের সক্রিয় সদস্য। পরষ্পর যোগসাজশে দীর্ঘদিন যাবৎ চিটাগাং রোড এলাকায় তারা অভিনব কৌশলে গণপরিবহনে চলাচলরত সাধারণ যাত্রীদের নিকট হতে মোবাইল, নগদ টাকা ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র চুরি করে আসছে। এই ধরনের সংঘবদ্ধ চোরাই চক্রের বিরুদ্ধে র‌্যাবের অভিযান অব্যাহত থাকবে।     গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

ময়মনসিংহ জেলার গৌরীপুর থানার ডাকাতি মামলার সাজাপ্রাপ্ত ফেরারী আসামীকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৪, সিপিসি-৩, ভৈরব ক্যাম্প।

গত ১৩/০৬/২০২১ ইং তারিখ বিকাল অনুমান ১৯.৩০ ঘটিকায় র‌্যাব-১৪ ভৈরব র‌্যাব ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রফিউদ্দীন মোহাম্মদ যোবায়ের এবং স্কোয়াড কমান্ডার মোহাম্মদ আক্কাছ আলী এর নেতৃত্বে র‌্যাবের একটি বিশেষ আভিযানিক দল ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সদর মডেল থানাধীন কাঞ্চনপুর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ময়মনসিংহ জেলার গৌরীপুর থানার মামলা নং-১১, তারিখ-১০/১২/৯২, জিআর নং-৯৭(২)৯২, ধারা-৩৯৫ পেনাল কোড এর সাজাপ্রাপ্ত ফেরারী আসামী ১। হাসেম (৫৩), পিতা-মৃত সুরুজ আলী, সাং-কুঠুরা গাঁও, থানা-তারাকান্দা (পূর্বের ফুলপুর থানা), জেলা-ময়মনসিংহকে সাজাপ্রাপ্ত পরোয়ানা মূলে গ্রেফতার করেন। উক্ত আসামী দীর্ঘ ২৯ বৎসর যাবৎ নিজ পরিচয় গোপন করে দেশের বিভিন্ন জায়গায় পালিয়ে ছিলেন।     উক্ত গ্রেফতারকৃত আসামীকে ময়মনসিংহ জেলার গৌরিপুর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। 

র‌্যাব-৮, সিপিসি-২, ফরিদপুর ক্যাম্প কর্তৃক রাজবাড়ী জেলার রাজবাড়ী সদর থানা হতে ইয়াবাসহ ০১ জন মাদক ব্যবসায়ী আটক

র‌্যাব-৮, সিপিসি-২, ফরিদপুর ক্যাম্প গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, ০১ জন  মাদক ব্যবসায়ী দীর্ঘদিন যাবৎ রাজবাড়ী জেলার রাজবাড়ী সদর থানা এলাকায় মাদকদ্রব্য ইয়াবা ট্যাবলেট পাইকারী ও খুচরা বিক্রয় করে আসছে। এ বিষয়ে ফরিদপুর র‌্যাব ক্যাম্প গোয়েন্দা তথ্য সংগ্রহ ও ঘটনার সত্যতা যাচাইয়ের জন্য গভীর অনুসন্ধান করে ঘটনার সত্যতা পায়। তদ্প্রেক্ষিতে ১৫/০৬/২০২১ইং তারিখ বিকালে র‌্যাব-৮, সিপিসি-২ ফরিদপুর ক্যাম্প গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারে যে, উক্ত মাদক ব্যবসায়ী ইয়াবাসহ রাজবাড়ী জেলার রাজবাড়ী সদর থানাধীন এড়েন্দা গ্রাম এলাকায় বিক্রয়ের জন্য অবস্থান করছে। এ প্রেক্ষিতে র‌্যাব-৮, সিপিসি-২, ফরিদপুর ক্যাম্পের একটি বিশেষ আভিযানিক দল অত্র ক্যাম্পের স্কোয়াড অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ খোরশেদ আলম এর নেতৃত্বে গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে ১৫/০৬/২০২১ ইং তারিখ বিকালে রাজবাড়ী জেলার রাজবাড়ী সদর থানাধীন এড়েন্দা গ্রাম এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে মাদক ব্যবসায়ী আসামী ০১। মোঃ সরোয়ার মোল্লা(৩৫), পিতা-মৃত আব্দুল মজিদ মোল্লা, সাং-বড়নুরপুর, থানা-রাজবাড়ী সদর, জেলা-রাজবাড়ীকে আটক করে । এ সময় আটককৃত আসামীর হেফাজতে থাকা ১৯১ (একশত একানব্বই) পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট ও মাদক দ্রব্য ক্রয়-বিক্রয় কাজে ব্যবহৃত ০২ টি সীমকার্ডসহ ০১টি মোবাইল ফোন এবং ০১টি মোটর সাইকেল জব্দ করা হয়।      উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্য ও অন্যান্য আলামত সহ গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে রাজবাড়ী জেলার রাজবাড়ী সদর থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা প্রক্রিয়াধীন।

রাজধানীর শনির আখরা থেকে কিশোর গ্যাং রক কিং গ্রুপের ০৫ জনকে গ্রেফতার করছে র‌্যাব।

গত ১৬/০৫/২০২১ তারিখ ১৯৩০ ঘটিকার সময় মেয়র হানিফ ফ্লাইওভারের উপর জয় কালী মন্দিরের কাছে একটি প্রাইভেটকারের গতি রোধ করে কতিপয় কিশোর গ্যাং এর সদস্যরা গাড়ীর চালককে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং তাকে শারীরিকভাবে আক্রমনের জন্য উদ্ধত হয়। এ সময় উক্ত গাড়ীতে এক জন ভদ্রলোক তার স্ত্রী এবং সন্তানসহ অবস্থান করছিলেন। উক্ত ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ পেলে জনমনে ব্যাপক অসন্তোষ সৃষ্টি হয়। এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব ঘটনাটির সাথে জড়িত ব্যক্তিদের সম্পর্কে গোয়েন্দা তথ্য সংগ্রহ শুরু করে। গোয়েন্দা তথ্যর ভিত্তিতে র‌্যাব জানতে পারে যে, উক্ত কিশোররা রক কিং কিশোর গ্যাং গ্রæপের সদস্য। তারা মাদক ক্রয়-বিক্রয় ও সেবন, এলাকায় চাঁদাবাজি, ছিনতাই, সাধারণ মানুষকে হয়রানি এবং বিভিন্ন রকম সন্ত্রাসী কর্মকান্ড পরিচালনা করে আসছে।  এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-৩ এর আভিযানিক দল সুনির্দিষ্ট গোয়েন্দা তথ্যর ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে ঢাকা মহানগরীর যাত্রাবাড়ি থানাধীন শনির আখড়া, গোবিন্দপুরস্থ এলাকায় ১৪/০৬/২০২১ তারিখ ২৩০০ ঘটিকার সময় নি¤œবর্ণিত সংঘবদ্ধ কিশোর গ্যাং চক্রের সদস্যদের গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।     ১।     ইমন আহম্মেদ শুভ (২০), জেলা-ঢাকা।     ২।     মোঃ সুমন মিয়া (১৮), জেলা-ঢাকা।     ৩।     আজাহারুল ইসলাম@দোলন (২১), জেলা-শরীয়তপুর।     ৪।     অন্তর হোসেন মোল্লা (২২), জেলা-ঢাকা।     ৫।     নাজমুল হাসান@সৈকত (২০), জেলা-নোয়াখালী।     এছাড়াও গ্রেফতারকৃত আসামীদের নিকট হতে ৩৭৪ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ০২ টি সুইচ গিয়ার চাকু, ০২ টি স্টীলের ব্যাটন, ০৩ টি মেটাল চেইন এবং ০৫ টি বক্সিং পাঞ্চার যন্ত্র উদ্ধার করা হয়। এখানে উল্লেখ্য যে, গ্রেফতারকৃত অন্তর হোসেন মোল্লার বিরুদ্ধে পূর্বেই হত্যা চেষ্টা মামলা রয়েছে।      উক্ত গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

ময়মনসিংহ জেলার নান্দাইল থানাধীন পুরাতন বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে নকল স্ট্যাম্পসহ ০২ জনকে গ্রেফতার করছে র‌্যাব—১৪।

গত ১৩ জুন ২০২১ খ্রি. তারিখ ১২.৩০ ঘটিকার সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব—১৪, এর একটি বিশেষ আভিযানিক দল সহকারী পরিচালক মোঃ আনোয়ার হোসেন এবং এএসপি মোঃ আব্দুল হান্নান এর নেতৃত্বে ময়মনসিংহ জেলার নান্দাইল থানাধীন পুরাতন বাসস্ট্যান্ড এলাকায় জামান লাইব্রেরি ও স্টেশনারি থেকে ২১০ টি এবং মামুন কম্পিউটার এন্ড ফটোস্ট্যাট থেকে ২৭৫ টি সহ সর্বমোট ৪৮৫ টি নকল রেভিনিউ স্ট্যাম্পসহ আসামী ১। মোঃ আসাদুজ্জামান (৩২) পিতা— মৃত আব্দুল মজিদ, ২। মোঃ রফিকুল ইসলাম (৩৩), পিতা— মোঃ আব্দুল মন্নাছ’দ্বয়কে আটক করা হয়। তাদের হেফাজত থেকে ০৩ টি নকল সীল, ০১ টি এন্ড্রয়েড মোবাইল সেট ও নগদ টাকা জব্দ করা হয়। 

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকায় অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে মাছ সংরক্ষণ, বিক্রয় ও বাজারজাত করায় র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতে ০৫ লক্ষ টাকা জরিমানা।

গত ১৩ জুন ২০২১ খ্রিঃ তারিখ ১২:০৫ ঘটিকা হতে ১৭:০০ ঘটিকা পর্যন্ত র‌্যাব সদর দপ্তর এর নির্বাহী ম্যাজিস্টে্রট জনাব নাদির শাহ ও র‌্যাব—১০ এর সমন্বয়ে একটি আভিযানিক দল রাজধানী ঢাকার যাত্রাবাড়ী এলাকায় মোবাইল কোর্ট কার্যক্রম সম্পন্ন করেন। এসময় ভ্রাম্যমাণ আদালত রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকায় অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে মাছ সংরক্ষণ, বিক্রিয় ও বাজারজাতকরণ করার অপরাধে পিবিএল কোল্ড স্টোরেজ এর মালিক আল মামুন হাসানকে নগদ— ১,০০,০০০/—(এক লক্ষ) টাকা, মাছ ব্যবসায়ী মোঃ শাহ আলকে নগদ— ১,০০,০০০/—(এক লক্ষ) টাকা, মাছ ব্যবসায়ী মোঃ টুটুল ফরাজীকে নগদ— ২,০০,০০০/—(দুই লক্ষ) ও ৪। মাছ ব্যবসায়ী মোঃ ইলিয়াস বিশ্বাসকে নগদ— ১,০০,০০০/—(এক লক্ষ) টাকা করে সর্বমোট নগদ ৫,০০,০০০ (পাঁচ লক্ষ) টাকা জরিমানা প্রদান করেন।      প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায় যে, বেশ কিছুদিন যাবৎ এই অসাধু ব্যবসায়ীরা অপরিষ্কার স্থানে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে মাছ সংরক্ষণ, বিক্রয় ও বাজারজাতকরণ করে আসছিল বলে জানা যায়।  

সহজে ইনস্টল করুন, রিপোর্ট করুন, নিরাপদ থাকুন

রিপোর্ট টু র‌্যাব মোবাইল অ্যাপস

সন্ত্রাসী আক্রমন

র‍্যাবকে সন্ত্রাসী আক্রমনের তথ্য দিতে পারবেন

সন্ত্রাসী তথ্য

র‍্যাবকে সন্ত্রাসীর তথ্য দিতে পারবেন

সামাজিক যোগাযোগ

র‍্যাবকে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম গুলতে অপরাধের তথ্য দিতে পারবেন

অপহরন

র‍্যাবকে অপহরনের তথ্য দিতে পারবেন

নিখোঁজ ব্যাক্তির তথ্য

র‍্যাবকে নিখোঁজ ব্যাক্তির তথ্য দিতে পারবেন

খুন

র‍্যাবকে খুনের তথ্য দিয়ে সাহায্য করতে পারবেন

ডাকাতি

র‍্যাবকে ডাকাতির তথ্য দিয়ে সাহায্য করতে পারবেন

মাদক

র‍্যাবকে মাদকের তথ্য দিতে পারবেন

সম্মাননা



  • অতিরিক্ত আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদ বিপিএম(বার)

    মহাপরিচালক

    র‌্যাব ফোর্সেস সদর দপ্তর

    বিপিএম - ২০১৯

  • পুলিশ সুপার মুহম্মদ মহিউদ্দিন ফারুকী বিপিএম

    র‌্যাব-২

    বিপিএম - ২০১৯

  • সাজেন্ট মোঃ শহীদুল ইসলাম,বিপিএম

    ইন্ট উইং

    র‌্যাব ফোর্সেস সদর দপ্তর

    বিপিএম - ২০১৯

  • সৈনিক মোঃ রাকিব হোসেন,বিপিএম

    র‌্যাব-১

    বিপিএম - ২০১৯

  • কর্নেল তোফায়েল মোস্তফা সরোয়ার পিএসসি, বিপিএম(সেবা)

    অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপারেশনস্)

    র‌্যাব ফোর্সেস সদর দপ্তর

    বিপিএম (সেবা) - ২০১৯

  • লেঃ কর্নেল মোঃ মাহাবুব আলম বিপিএম(বার),বিপিএম(সেবা),পিপিএম

    অপস্ /ইন্ট উইং

    র‌্যাব ফোর্সেস সদর দপ্তর

    বিপিএম (সেবা) - ২০১৯

  • লেঃ কর্নেল মীর আসাদুল আলম, বিপিএম (সেবা)

    এয়ার উইং

    র‌্যাব ফোর্সেস সদর দপ্তর

    বিপিএম (সেবা) - ২০১৯

  • মেজর শাহীন আজাদ,বিপিএম, পিপিএম,জি+

    ইন্ট উইং

    র‌্যাব ফোর্সেস সদর দপ্তর

    পিপিএম - ২০১৯

  • মেজর এস এম সুদীপ্ত শাহীন,পিপিএম(বার)

    অপস উইং

    র‌্যাব ফোর্সেস সদর দপ্তর

    পিপিএম - ২০১৯

  • মেজর খান সজিবুল ইসলাম,পিপিএম

    র‌্যাব-৮

    পিপিএম - ২০১৯

ফটো গ্যালারি

ভিডিও গ্যালারি

র‌্যাব ব্যাটালিয়ন সমূহের তথ্য

র‌্যাব ব্যাটালিয়ন সমূহ