Home » Uncategorized » লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইং

লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইং

arcvর‌্যাবের সকল প্রকার আইনগত বিষয় পর্যবেক্ষণ, স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা এবং মানবাধিকার বিষয়াদিসহ গণমাধ্যমে র‌্যাবের মুখপাত্র হিসেবে কাজ করছে লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইং। একজন পরিচালকের নেতৃত্বে একজন উপ-পরিচালক, ২ জন সিনিয়র সহকারী পরিচালক ও ৩ জন আইন কর্মকর্তা (সিনিয়র সহকারী পরিচালক) এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে এ উইং এর কর্মকান্ড লিগ্যাল সেল, মিডিয়া সেল, মানবাধিকার সেল ও অভ্যন্তরীণ তদন্ত সেল নামে চারটি আলাদা সেলের মাধ্যমে পরিচালিত হচ্ছে। র‌্যাবের সার্বিক অপারেশনাল কার্যক্রমের সাফল্য দেশের সর্বস্তরের মানুষের কাছে তুলে ধরার মাধ্যমে র‌্যাব ও

p-cutt

জনগণের মধ্যে সেতুবন্ধন তৈরি করে থাকে লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইং।

১। র‌্যাবের সাথে সংশ্লিষ্ট আইন আদালত সংক্রন্ত কার্যক্রম এ সেল থেকে সম্পন্ন হয়ে থাকে। এ সেলের আর্কাইভে র‌্যাবের আইন-আদালত সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্যাদি প্রতিনিয়ত সংরক্ষণ করা হয়। এ সেলের কার্যক্রম চারটি ভাগে বিভক্তঃ

ক। আদালত সংশ্লিষ্ট কার্যক্রম

খ। লিগ্যাল সংশ্লিষ্ট সাধারণ কার্যক্রম।

গ। জাতীয় সংসদ এর প্রশ্নোত্তর।

ঘ। মোবাইল কোর্ট কার্যক্রম।

২। বর্তমানে তথ্য প্রবাহের যুগে মিডিয়া একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম। এই সেলের মাধ্যমে র‌্যাবের সার্বিকmedia

সাফল্যের দৈনন্দিন আভিযানিক এবং অনাভিযানিক কার্যক্রম সমূহ অতি দ্রুততার সাথে দেশের সকল গণমাধ্যম এর

সহায়তায় দেশ ও জাতিকে অবহিত করা ছাড়াও আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে তুলে ধরা হচ্ছেঃ

ক। ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়া প্রচার ।

খ। সকল প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া মনিটরিং।

গ। আর্কাইভ ফটোগ্রাফি।

৩। এই সেল কর্তৃক জাতীয় মানবাধিকার কমিশনসহ দেশী-বিদেশী বিভিন্ন মানবাধিকার ও আইনি সংগঠন

এবং সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়সমূহের সাথে মানবাধিকার সুরক্ষা-সংক্রান্ত বিষয়াদি সম্পন্ন করা হয়।

৪। নিরপেক্ষ ও স্বচ্ছতার সাথে র‌্যাব সদস্য সম্পর্কিত অভিযোগ সমূহ কার্যকর ভাবে অনুসন্ধান করার

লক্ষ্যে র‌্যাবের অভ্যন্তরীণ তদন্ত সেল গঠন করা হয়েছে।

র‌্যাব কর্তৃক প্রদত্ত পরামর্শ

***জমি জমা বা টাকা-পয়সা সংক্রান্ত কোন অভিযোগ র‌্যাব কর্তৃক গ্রহণ করা হয় না ।
***ব্যক্তিগত বা পারিবারিক কোন সমস্যা র‌্যাব কর্তৃক গ্রহণ করা হয় না ।
***কোন অভিযোগ করার পূর্বে আপনার এলাকার জন্য দায়িত্বপূর্ন র‌্যাব ব্যাটালিয়ন/ক্যাম্প সম্পর্কে জানুন ও যথাযথ র‌্যাব ব্যাটালিয়ন/ক্যাম্পে অভিযোগ করুন ।
***আপনার এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী, অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীদের সম্পর্কে র‌্যাব কে তথ্য প্রদান করে র‌্যাবকে সহযোগীতা করুন । আপনার পরিচয় সম্প‍ুর্ন্ন গোপন রাখা হবে । ***বেশী করে গাছ লাগান অক্সিজেনের অভাব তাড়ান
***ছোট ছোট ছেলে-মেয়েদের আগুন নিয়ে খেলতে দিবেন না ।
***যাত্রা পথে অপরিচিত লোকের দেওয়া বিছু খাবেন না । ভ্রমণকালে সহযোগী বা অন্য কাহারো নিকট হইতে পান, বিড়ি, সিগারেট, চা বা অন্য কোন পানীয় খাওয়া/গ্রহন করা হইতে বিরত ‍থাকা আবশ্যক ।

সাম্প্রতিক ভিডিও