Home » News Room » র‌্যাবের অভিযানে সুন্দরবনের শ্যামনগর থানাধীন হরিনগর পশুরতলা খাল এলাকা হতে দুর্ধর্ষ জলদস্যু “রবিউল বাহিনীর” ০৪ সদস্য গ্রেফতার ॥ অস্ত্র-গোলাবারুদ এবং অপহৃত জেলে উদ্ধার

র‌্যাবের অভিযানে সুন্দরবনের শ্যামনগর থানাধীন হরিনগর পশুরতলা খাল এলাকা হতে দুর্ধর্ষ জলদস্যু “রবিউল বাহিনীর” ০৪ সদস্য গ্রেফতার ॥ অস্ত্র-গোলাবারুদ এবং অপহৃত জেলে উদ্ধার

১।    প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি “ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ” খ্যাত সুন্দরবন পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা ও জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। উক্ত বনভূমিকে কেন্দ্র করে জেলে, মাওয়ালী থেকে শুরু করে নানা পেশাজীবী মানুষের বসবাস। এই সুন্দরবনের জলদস্যুদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা, ডাকাতি ও দস্যুতা দমনের জন্য সরকার কর্তৃক একটি টাস্কফোর্স গঠন করা হয়েছে, যার সভাপতি র‌্যাব এর মহাপরিচালক। উক্ত টাস্কফোর্সের আওতায় র‌্যাব-৬ খুলনা, সাতক্ষীরা ও বাগেরহাট জেলার সুন্দরবন এলাকায় জলদস্যু ও বনদস্যুদের বিরুদ্ধে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে আসছে। এসব এলাকায় যে দুর্ধর্ষ বাহিনীগুলো দীর্ঘদিন যাবৎ জলদস্যুতা চালিয়ে আসছে, তাদের মধ্যে জলদস্যু “রবিউল বাহিনী” অন্যতম। এই বাহিনীগুলোর বিরুদ্ধে র‌্যাব-৬ এর ধারাবাহিক অভিযানের অংশ হিসেবে অদ্য ১৬ জুন ২০১৭ তারিখ দিবাগত রাতে সুন্দরবনের শ্যামনগর থানাধীন হরিনগর সাকিনে পশুর তলার খালের ভিতরে ১ কিঃ মিঃ পশ্চিমে সুন্দরবনের মধ্যে গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-৬, খুলনা এর একটি আভিযানিক দল আনুমানিক ভোর ০৫.৩০ ঘটিকার সময় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে।

২।    এই বিশেষ অভিযানে ঘটনাস্থল থেকে গত ৯/১০ দিন আগে থেকে অপহৃত ৭ জন স্থানীয় গরীব জেলে ও কাঁকড়া চাষীদের উদ্ধার করা হয়। এছাড়া স্থানীয় জন সাধারন ও গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে জলদস্যুদের গতিবিধি ও অবস্থান নিশ্চিত হয়ে ঘটনাস্থল থেকে আরও ৪ জন ডাকাতকে গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত সুন্দরনের জলদস্যু “রবিউল বাহিনী”র সক্রিয় সদস্য বলে জানা যায়।  আসামী ১) মোঃ ই¯্রাফিল ময়না (২৫), পিতা মৃত-নজরুল গাইন, গ্রামঃ দাতিনা খালী, পোস্টঃ বুড়িগোয়ালিনী, থানাঃ শ্যামনগর, জেলাঃ সাতক্ষীরা, ২) মোঃ জামাল গাজী (২৪), পিতাঃ মোঃ কাদের গাজী, গ্রামঃ হরিনগর, পোস্টঃ হরিনগর, থানাঃ শ্যামনগর, জেলাঃ সাতক্ষীরা, ৩) মোঃ মনিরুল হাওলাদার (১৮) পিতাঃ মোঃ জালাল হাওলাদার, গ্রামঃ নারিকেল বাড়ীয়া, পোস্টঃ পিরোজপুর সদর, এ/পিঃ গ্রামঃ দাতিনা খালি, পোস্টঃ বুড়িগোয়ালিনি, থানাঃ শ্যামনগর, জেলাঃ সাতক্ষীরা, ৪) মোঃ গোলাম রসুল (২০), পিতাঃ মোঃ নুর ইসলাম সানা, গ্রামঃ মির্জাপুর, পোস্টঃ আনুলিয়া, থানাঃ আশাশুনি, জেলাঃ সাতক্ষীরা দেরকে ০৫টি একনলা পাইপ গান, ০২টি একনলা বন্দুক, ৩৩ রাউন্ড বন্দুকের কার্তুজ ও ০১টি হাসুয়া সহ গ্রেফতার করা হয়।

৩।    সুন্দরবনের এসব জলদস্যুদের আইনের আওতায় নিয়ে আসা এবং এ ধরণের উদ্ধার অভিযান ভবিষ্যতে অব্যাহত থাকবে।

র‌্যাব কর্তৃক প্রদত্ত পরামর্শ

***জমি জমা বা টাকা-পয়সা সংক্রান্ত কোন অভিযোগ র‌্যাব কর্তৃক গ্রহণ করা হয় না ।
***ব্যক্তিগত বা পারিবারিক কোন সমস্যা র‌্যাব কর্তৃক গ্রহণ করা হয় না ।
***কোন অভিযোগ করার পূর্বে আপনার এলাকার জন্য দায়িত্বপূর্ন র‌্যাব ব্যাটালিয়ন/ক্যাম্প সম্পর্কে জানুন ও যথাযথ র‌্যাব ব্যাটালিয়ন/ক্যাম্পে অভিযোগ করুন ।
***আপনার এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী, অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীদের সম্পর্কে র‌্যাব কে তথ্য প্রদান করে র‌্যাবকে সহযোগীতা করুন । আপনার পরিচয় সম্প‍ুর্ন্ন গোপন রাখা হবে । ***বেশী করে গাছ লাগান অক্সিজেনের অভাব তাড়ান
***ছোট ছোট ছেলে-মেয়েদের আগুন নিয়ে খেলতে দিবেন না ।
***যাত্রা পথে অপরিচিত লোকের দেওয়া বিছু খাবেন না । ভ্রমণকালে সহযোগী বা অন্য কাহারো নিকট হইতে পান, বিড়ি, সিগারেট, চা বা অন্য কোন পানীয় খাওয়া/গ্রহন করা হইতে বিরত ‍থাকা আবশ্যক ।

সাম্প্রতিক ভিডিও