Home » News Room » র‌্যাবের অভিযানে সুন্দরবনের জুংড়া খাল এলাকা হতে অস্ত্র ও গোলাবারুদসহ ০২জন জলদস্যু/বনদস্যু গ্রেফতার

র‌্যাবের অভিযানে সুন্দরবনের জুংড়া খাল এলাকা হতে অস্ত্র ও গোলাবারুদসহ ০২জন জলদস্যু/বনদস্যু গ্রেফতার

১।    সাম্প্রতিক সময়ে পূর্ব/পশ্চিম সুন্দরবনের কূখ্যাত জলদস্যু/বনদস্যু “বড় ভাই’’ বাহিনী কর্তৃক জেলেদের প্রতি নৃশংতা ও ডাকাতির কার্যক্রমের ক্রমাগত ঘটনা র‌্যাবের গোচরে আসে। বর্তমান সময়ে উক্ত বাহিনী সুন্দরবনের শিবসা, আড়পাঙ্গাসিয়া, ছোটকলাগাছিয়া নদী, খুলনা এবং চাঁদপাই রেঞ্জের বিভিন্ন চর অঞ্চলে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক জেলে অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায়সহ নৃশংস ডাকাতি কাজ করছে বলে জাতীয় পত্র পত্রিকা ও মিডিয়ায় প্রকাশিত হয়েছে।

২।    বর্ণিত কূখ্যাত জলদস্যু/বনদস্যু “বড় ভাই” বাহিনীর অবস্থান সনাক্তের ব্যাপারে র‌্যাব গোয়েন্দা কার্যক্রম চালিয়ে যেতে থাকে। গোয়েন্দা তথ্য, বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় এবং স্থানীয়দের তথ্য মতে জানা যায় যে, “বড় ভাই” বাহিনী সুন্দরবনের বিভিন্ন নদী এবং নদী সংলগ্ন খাল, খুলনা ও চাঁদপাই রেঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় নিরীহ জেলেকে অপহরণ ও মাছ ধরার ট্রলারে লুটপাট চালায়। অপহরণ পরবর্তী কৌশলে জেলেদের পরিবারকে ফোন করে জন প্রতি বিপুল অংকের টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। মুক্তিপণ দিয়ে কতিপয় জেলে ছাড়া পায় এবং মুক্তিপণ দিতে অপারগ জেলেদের অমানুষিক নির্যাতন চালানো হয়। এরই ফলশ্রুতিতে অদ্য ০৬ মে ২০১৭ তারিখ “বড় ভাই” বাহিনীর সম্ভাব্য আস্তানা সনাক্ত হবার সাথে সাথেই র‌্যাব-৮, বরিশাল এর একটি আভিযানিক দল পশুর নদীর ধারে অগ্রসর হতে থাকে। দুপুর আনুমানিক ১২৩০ ঘটিকার সময় জুংড়া খাল নামক স্থানের কাছাকাছি পৌছলে বাইনোকুলারের সাহায্যে নিবিড়ভাবে চারপাশ পর্যবেক্ষণ করে বনের ভিতর কয়েকজন লোককে সন্দেহজনক ভাবে ঘোরাফেরা করতে দেখে। আভিযানিক দলটি কৌশলগত ভাবে সাবধনতার সাথে তাদের দিকে লক্ষ্য করে এগিয়ে যেতে থাকে। এ সময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে দৌড়ে পালিয়ে যেতে দেখে র‌্যাবের আভিযানিক দল তাদেরকে ধাওয়া করে অস্ত্র ও গুলিসহ ০২জন জলদস্যু/বনদস্যুকে আটক করে। আটককৃত জলদস্যু/বনদস্যুদেরকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা কুখ্যাত জলদস্যু/বনদস্যু ‘‘বড় ভাই’’  বাহিনীর সক্রিয় সদস্য বলে নি¤েœ বর্নিত নাম ও পরিচয় প্রদান করেঃ (১) মোঃ খলিল শেখ ওরফে রাঙ্গা মিয়া (৩২), পিতাঃ মোঃ আবু তালেব শেখ, সাং-সুলতানিয়া (২) মোঃ নজরুল ইসলাম মোল্যা (৪২), পিতাঃ মৃতঃ কাওছার আলী মোল্যা, সাং-কালিকাপ্রসাদ উভয় থানাঃ রামপাল, জেলাঃ বাগেরহাট। উল্লেখিত জলদস্যু/বনদস্যু’সহ এবং ঘটনার আকস্মিকতায় উক্ত স্থান ও আশেপাশে জড়ো হওয়া বনজীবি জেলে, বাওয়ালী ও মাওয়ালীদের সহযোগীতায় ঘটনাস্থলে ব্যাপক তল্লাশী করে বনের মধ্য হতে জলদস্যুদের ব্যবহৃত (১) ০১টি বিদেশী একনালা বন্দুক (২) ০১টি বিদেশী দোনালা বন্দুক (৩) ০২টি বিদেশী কাটা রাইফেল (৪) বিভিন্ন অস্ত্রের ১৯ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করে)। উল্লেখ্য উদ্ধারকৃত আলামত ও সরঞ্জামাদি পর্যবেক্ষন করে সেখানে ৫ থেকে ৬ জন জলদস্যুর অবস্থান সম্পর্কে প্রাথমিক ভাবে ধারনা লাভ করা যায়।

৩।    উপরোক্ত বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

র‌্যাব কর্তৃক প্রদত্ত পরামর্শ

***জমি জমা বা টাকা-পয়সা সংক্রান্ত কোন অভিযোগ র‌্যাব কর্তৃক গ্রহণ করা হয় না ।
***ব্যক্তিগত বা পারিবারিক কোন সমস্যা র‌্যাব কর্তৃক গ্রহণ করা হয় না ।
***কোন অভিযোগ করার পূর্বে আপনার এলাকার জন্য দায়িত্বপূর্ন র‌্যাব ব্যাটালিয়ন/ক্যাম্প সম্পর্কে জানুন ও যথাযথ র‌্যাব ব্যাটালিয়ন/ক্যাম্পে অভিযোগ করুন ।
***আপনার এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী, অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীদের সম্পর্কে র‌্যাব কে তথ্য প্রদান করে র‌্যাবকে সহযোগীতা করুন । আপনার পরিচয় সম্প‍ুর্ন্ন গোপন রাখা হবে । ***বেশী করে গাছ লাগান অক্সিজেনের অভাব তাড়ান
***ছোট ছোট ছেলে-মেয়েদের আগুন নিয়ে খেলতে দিবেন না ।
***যাত্রা পথে অপরিচিত লোকের দেওয়া বিছু খাবেন না । ভ্রমণকালে সহযোগী বা অন্য কাহারো নিকট হইতে পান, বিড়ি, সিগারেট, চা বা অন্য কোন পানীয় খাওয়া/গ্রহন করা হইতে বিরত ‍থাকা আবশ্যক ।

সাম্প্রতিক ভিডিও