Home » News Room » র‌্যাবের অভিযানে রাজধানীর লালবাগ থানা এলাকা হতে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে বন্ধুকে হত্যার উদ্দেশ্যে মারাতœকভাবে ছুরিকাহত করা ঘাতক বন্ধুকে গ্রেতফার।

র‌্যাবের অভিযানে রাজধানীর লালবাগ থানা এলাকা হতে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে বন্ধুকে হত্যার উদ্দেশ্যে মারাতœকভাবে ছুরিকাহত করা ঘাতক বন্ধুকে গ্রেতফার।

১।    র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সবসময় বিভিন্ন ধরণের অপরাধীদের গ্রেফতারের ক্ষেত্রে অত্যন্ত অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। র‌্যাবের সৃষ্টিকাল থেকে এ পর্যন্ত অপহরণকারী, সন্ত্রাসী, এজাহারনামীয় আসামী, ডাকাতি, ছিনতাইকারী, চাঁদাবাজ, প্রতারকচক্র, মাদক ব্যবসায়ী, ধর্ষণকারী, চোরাকারবারীদের গ্রেফতার করে সাধারণ জনগণের মনে আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।

২। এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-২ এর র‌্যাবের নিয়মিত টহল দল আইন-শৃংখলা রক্ষার্থে নিয়োজিত থাকাকালে অদ্য ০৯ মার্চ ২০১৮ তারিখ সকাল ০৯.৩০ ঘটিকার সময় রাজধানীর লালবাগ থানাধীন ভাগলপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে পৌছালে উপস্থিত জনসাধারণের আর্তচিৎকার শুনে টহলরত গাড়ি থামালে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে ঘাতক (১) মোঃ ওমর ফারুক (২২), পিতা-মোঃ নুরুল ইসলাম, সাং- উত্তর শীলপাশা, থানা- গৌরনদী, জেলা-বরিশাল, অ/চ ৩৭/১, এনায়েতগঞ্জ, খলিলুর রহমানের বাসার ভাড়াটিয়া, থানা- হাজারীবাগ, ডিএমপি, ঢাকা’কে রক্তমাখা চাকু হাতে নিয়ে দৌড়ে পালানোর চেষ্টাকালে র‌্যাব সদস্যরা তাকে রক্তমাখা চাকুসহ গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত ঘাতক প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানায় যে, গত ০৬ মাস পূর্বে নেশায় আসক্ত হয়ে সে এলাকার স্কুল, কলেজ পড়ুয়া ছাত্রীদেরসহ চাকুরিজীবি মহিলাদের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ করে। এরুপ আচরণ সংশোধনের লক্ষ্যে তার বন্ধুরা তাকে এলাকার বয়স্ক লোকদের, মা-বোনদেরকে সম্মান দিয়ে চলার পরামর্শ দেয় কিন্তু তাতেও তার আচরণের কোন পরিবর্তন হয় না। এরই জের ধরে পরবর্তীতে তার এলাকার ছেলে মোঃ বাপ্পারাজ (২৮)’কে একা পেয়ে হত্যা করার উদ্দেশ্যে বুকের ডান পার্শ্বে এবং পেটে ধারালো চাকু দ্বারা এলোপাথারিভাবে আঘাত করে গুরুত্বর রক্তাক্ত জখম করে।

৩।    উপরোক্ত বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

সাম্প্রতিক ভিডিও




র‌্যাব কর্তৃক প্রদত্ত পরামর্শ

***জমি জমা বা টাকা-পয়সা সংক্রান্ত কোন অভিযোগ র‌্যাব কর্তৃক গ্রহণ করা হয় না ।
***ব্যক্তিগত বা পারিবারিক কোন সমস্যা র‌্যাব কর্তৃক গ্রহণ করা হয় না ।
***কোন অভিযোগ করার পূর্বে আপনার এলাকার জন্য দায়িত্বপূর্ন র‌্যাব ব্যাটালিয়ন/ক্যাম্প সম্পর্কে জানুন ও যথাযথ র‌্যাব ব্যাটালিয়ন/ক্যাম্পে অভিযোগ করুন ।
***আপনার এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী, অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীদের সম্পর্কে র‌্যাব কে তথ্য প্রদান করে র‌্যাবকে সহযোগীতা করুন । আপনার পরিচয় সম্প‍ুর্ন্ন গোপন রাখা হবে । ***বেশী করে গাছ লাগান অক্সিজেনের অভাব তাড়ান
***ছোট ছোট ছেলে-মেয়েদের আগুন নিয়ে খেলতে দিবেন না ।
***যাত্রা পথে অপরিচিত লোকের দেওয়া বিছু খাবেন না । ভ্রমণকালে সহযোগী বা অন্য কাহারো নিকট হইতে পান, বিড়ি, সিগারেট, চা বা অন্য কোন পানীয় খাওয়া/গ্রহন করা হইতে বিরত ‍থাকা আবশ্যক ।