Home » News Room » র‌্যাবের অভিযানে রাজধানীর উত্তরাখান হতে ০২ জন মাদক ব্যবসায়ী ও প্রতারক গ্রেফতার ॥ ইয়াবা ট্যাবলেট ও প্রতারণার কাজে ব্যবহৃত সরঞ্জামাদি উদ্ধার।

র‌্যাবের অভিযানে রাজধানীর উত্তরাখান হতে ০২ জন মাদক ব্যবসায়ী ও প্রতারক গ্রেফতার ॥ ইয়াবা ট্যাবলেট ও প্রতারণার কাজে ব্যবহৃত সরঞ্জামাদি উদ্ধার।

১।    মাদকাসক্তি একটি বহুমাত্রিক সামাজিক সমস্যা। এ সমস্যা ক্রমশঃ বিস্তৃত হচ্ছে ব্যক্তি হতে পরিবার, পরিবার হতে সমাজে, সমাজ হতে রাষ্ট্রে। যে যুব সমাজ দেশ ও জাতির আগামী দিনের চালিকা শক্তি, তাদের একটি অংশ মাদকাসক্তির কবলে পড়ে নানা ধরনের অপরাধমূলক কর্মকান্ডে জড়িয়ে পড়ছে। র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সবসময়ই মাদক উদ্ধারের ক্ষেত্রে অত্যন্ত অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। র‌্যাব এই পর্যন্ত র‌্যাব বিপুল পরিমান দেশী/বিদেশী অবৈধ মাদক উদ্ধার করে সাধারণ জনগনের মনে আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।

২।    র‌্যাব-১, উত্তরা, ঢাকা এর একটি আভিযানিক দল অদ্য ০৬ মার্চ ২০১৮ তারিখ আনুমানিক ১২১০ ঘটিকায়  গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাজধানীর উত্তরখান থানাধীন আটিপাড়া এলাকায় একটি মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে। প্রাপ্ত সংবাদের ভিত্তিতে আভিযানিক দলটি বর্ণিত স্থানে অভিযান পরিচালনা করে মাদক ব্যবসায়ী ১। মোঃ মাহবুব হাসান মাহিন (২০), পিতা- মোঃ আমজাদ আলী, সাং মাটিকাটা, থানা- গোদাগাড়ী, জেলা- রাজশাহী এবং ২। আব্দুল¬াহ আল ত্বাসীন @ শিশির (২০), পিতা- আব্দুল হান্নান মিরুজ, সাং নারায়নপুর, থানা- পাবনা সদর, জেলা- পাবনা’কে গ্রেফতার করে। এসময় তাদের নিকট হতে ৭৮ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ইয়াবা বিক্রিত নগদ ১০,৩১৩/- (দশ হাজার তিনশত তের মাত্র) টাকা, ০১টি ল্যাপটপ, ০৭টি মোবাইল ফোন, ০৫টি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের হাতঘড়ি, ০২টি ডায়েরী খাতা, ১৫টি লুব্রিকেটিং জেল, ০৬টি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের লিপস্টিক, ১০টি ঈযধৎষব ঈড়সঢ়ধপঃ চড়ফিবৎ, ০৬টি মেকআপ বক্স, ০২টি ঠধঃরহু ঝঁঢ়বৎ চড়ফিবৎ, ০১টি গুধঃ ইযড়ড়স চরিহঃ, ০১টি ঋৎবংয খড়ড়শ ঈধৎব, সিটিগোল্ডের তৈরি ০১টি নেকলেস, ০১টি গলার চেইন, ০১টি নাকের নোলক, ০১টি খরমরড়হ এবহঃং টঢ়ঃধহ, ০১ পাতা চুলের কালো ক্লিপ, ০১টি ইষঁব ঐবধাবহ, ০১টি সানগ্ল¬াস, ০২টি মানিব্যাগ, ০১ পাতা টিপ, ০১ ছড়া চাবি, ০১টি চুলের ব্যান্ড, ১০টি কনডম, ০১ জোড়া মহিলাদের জুতা, ০১ গোছা কৃত্রিম চুল, কৃত্রিম স্তন সাদৃশ্য ফোম, ০৪টি মেয়েদের জামা, ০১টি ব্ল¬াউজ, ০১টি ব্রা, ০১টি পেন্টি, ০২টি পেটিকোট, ০২টি ওড়না, ০২টি পুরাতন শাড়ী, ০১ পায়জামা, ০১টি ভ্যানিটিব্যাগ, ০১ বোতল ঝই ঐবৎনধষ ও ০৩টি ঝই ঐবৎনধষ এর খালি বোতল, ০২টি কলেজের স্টুডেন্ট আইডি কার্ড ও ০১টি ডাচ্বাংলা ব্যাংক এর ক্রেডিট কার্ড জব্দ করা হয়।

৩।    জব্দকৃত ইয়াবা ট্যাবলেটগুলো খুচরা বিক্রয়ের জন্য ধৃত আসামীদ্বয় বর্ণিত স্থানে অবস্থান করছিল বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়। তাদের নিকট হতে জব্দকৃত একাধিক মোবাইল ফোন, মেয়েলি জিনিসপত্র, অন্যান্য অসামঞ্জস্য ও রহস্যপূর্ণ দ্রব্যাদি নিজেদের সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদ কালে জানা যায় যে, তারা ফেসবুক সহ অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মেয়েদের নামে ফেইক আইডি খুলে সমাজের বিভিন্ন শ্রেণী পেশার ব্যক্তিদের সাথে ফেসবুকসহ অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলেতে বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে প্রতারণা করে আসছে। প্রতারণার কৌশল হিসেবে তারা ফেইক আইডির মাধ্যমে সমাজের বিভিন্ন শ্রেণীর ব্যক্তিকে টার্গেট করে তাদের সাথে ম্যাসেজ আদান-প্রদান ও মোবাইল ফোনে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে তোলে। সম্পর্ক গভীর হলে একপর্যায়ে তারা মেয়ের বেশে ভিডিও কলের মাধ্যমে বিভিন্ন সফ্টওয়্যার ব্যবহার করে টার্গেটকৃত ব্যক্তিদের গোপন/দূর্বল মুহুর্তের ভিডিও ধারণ করে। ধৃত অসামীদ্বয় ধারণকৃত ভিডিও এডিটিং করে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে মোটা অংকের টাকা, মোবাইল ফোন, স্বর্ণালংকার সহ বিভিন্ন দামি জিনিসপত্র হাতিয়ে নেয়। সমাজের বিভিন্ন শ্রেণী পেশার লোক ধৃত আসামীদ্বয়ের মাধ্যমে প্রতারিত হলেও আত্মসম্মান ও লোকলজ্জার ভয়ে প্রতারিত ব্যক্তি এ বিষয়ে আইনপ্রয়োগকারী সংস্থাকে অবহিত করা হতে বিরত থাকে।

৫।    উপরোক্ত বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

সাম্প্রতিক ভিডিও




র‌্যাব কর্তৃক প্রদত্ত পরামর্শ

***জমি জমা বা টাকা-পয়সা সংক্রান্ত কোন অভিযোগ র‌্যাব কর্তৃক গ্রহণ করা হয় না ।
***ব্যক্তিগত বা পারিবারিক কোন সমস্যা র‌্যাব কর্তৃক গ্রহণ করা হয় না ।
***কোন অভিযোগ করার পূর্বে আপনার এলাকার জন্য দায়িত্বপূর্ন র‌্যাব ব্যাটালিয়ন/ক্যাম্প সম্পর্কে জানুন ও যথাযথ র‌্যাব ব্যাটালিয়ন/ক্যাম্পে অভিযোগ করুন ।
***আপনার এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী, অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীদের সম্পর্কে র‌্যাব কে তথ্য প্রদান করে র‌্যাবকে সহযোগীতা করুন । আপনার পরিচয় সম্প‍ুর্ন্ন গোপন রাখা হবে । ***বেশী করে গাছ লাগান অক্সিজেনের অভাব তাড়ান
***ছোট ছোট ছেলে-মেয়েদের আগুন নিয়ে খেলতে দিবেন না ।
***যাত্রা পথে অপরিচিত লোকের দেওয়া বিছু খাবেন না । ভ্রমণকালে সহযোগী বা অন্য কাহারো নিকট হইতে পান, বিড়ি, সিগারেট, চা বা অন্য কোন পানীয় খাওয়া/গ্রহন করা হইতে বিরত ‍থাকা আবশ্যক ।