Home » News Room » র‌্যাবের অভিযানে রাজধানীর উত্তরা পূর্ব থানাধীন নেষ্ট রেস্টুরেন্ট এন্ড বারে মাদক বিরোধী অভিযান ॥ বিপুল পরিমান দেশী-বিদেশী মদ ও বিয়ারসহ বারের ১৫ জন কর্মকর্তা ও কর্মচারী গ্রেফতার।

র‌্যাবের অভিযানে রাজধানীর উত্তরা পূর্ব থানাধীন নেষ্ট রেস্টুরেন্ট এন্ড বারে মাদক বিরোধী অভিযান ॥ বিপুল পরিমান দেশী-বিদেশী মদ ও বিয়ারসহ বারের ১৫ জন কর্মকর্তা ও কর্মচারী গ্রেফতার।

১।    বর্তমান প্রেক্ষাপটে তরুণ সমাজ ধ্বংসের সবচেয়ে আলোচিত এবং অন্যতম মাধ্যম হিসেবে মাদকদ্রব্যকে ব্যবহার করা হচ্ছে। এতদ্সংক্রান্তে এক শ্রেণীর অসাধু মাদক ব্যবসায়ী নিজস্ব স্বার্থ সিদ্ধির উদ্দেশ্যে অবৈধভাবে দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ প্রত্যন্ত অঞ্চলের যুব সমাজের হাতে মাদকদব্য বা নেশাজাতীয় দ্রব্য পৌঁছে দেওয়ার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। সমাজে মাদকের ভয়াল থাবার বিস্তার রোধকল্পে এই সকল মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতারসহ মাদক বিরোধী অভিযানে র‌্যাব সর্বদা সক্রিয় ভূমিকা পালন করে আসছে।

২।    এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-১, উত্তরা, ঢাকা এর একটি আভিযানিক দল গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, আসন্ন থার্টিফার্ষ্ট নাইট উপলক্ষ্যে রাজধানীর উত্তরা পূর্ব থানাধীন সেক্টর-৪, রোড নং-১৪/এ, হাউজ নং-১২ এ অবস্থিত নেষ্ট রেস্টুরেন্ট ও বারে বিপুল পরিমান অনুমোদন বিহীন মাদকদ্রব্য বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে অবৈধভাবে মজুদ আছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে আভিযানিক দলটি গত ২৮ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখ ২৩০০ ঘটিকায় নেষ্ট রেস্টুরেন্ট ও বারে একটি মাদকবিরোধী অভিযান পরিচালনা করে উক্ত বারের ম্যানেজার ১। মোঃ আরিফুল ইসলাম (৩৪) সহ বারের কর্মচারী ২। মোঃ রেজাউল হক সুমন(৩৪),  ৩। মোঃ নুরুল ইসলাম (২৮), ৪। আনোয়ার হোসেন (৪০), ৫। মোঃ হাবিবল্লাহ হাছান (১৯), ৬। মোঃ শামীম হোসেন @ আঃ রহমান (২০), (৭) মোঃ আলা উদ্দিন (২০), ৮। নিলয় রোজারিও (১৮), ৯। রানা (২১), ১০। শুভংকর দাস (২২), ১১। আলম বিশ¡াস (২৮), ১২। অমিত পালমা (২০), ১৩। মোঃ সুজন মিয়া (১৯), ১৪। শ্রী সজল চন্দ্র দে (৩০), ১৫। শ্যামল ডালী (২৯)দেরকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় উক্ত বার হতে অবৈধভাবে মজুদকৃত ৩৪ বোতল বিদেশী মদ, ৪৬০ বোতল দেশীয় ব্র্যান্ডের মদ, ১.৫ লিটারের ০৪টি  মাম পানির বোতলে রক্ষিত বিদেশী মদ, ১৯৩৪ ক্যান বিয়ার উদ্ধার করা হয় এবং মাদক বিক্রির নগদ ২,৯৭,১৬০/- (দুই লক্ষ সাতানব্বই হাজার একশত ষাট মাত্র) টাকা জব্দ করা হয়। উদ্ধারকৃত সকল মাদক দ্রব্যের আনুমানিক বাজার মূল্য ১১,৭১,২০০.০০ (এগার লক্ষ একাত্তর হাজার দুইশত মাত্র) টাকা।

৩।    উক্ত অভিযানে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর উত্তরা সার্কেলের দায়িত্বপ্রাপ্ত পরিদর্শক জনাব মাসুদুর রহমান উপস্থিত ছিলেন। পরিদর্শক, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর এর উপস্থিতিতে বারের রেজিষ্টারপত্র পর্যালোচনা করে এবং সরেজমিনে দেখা যায় যে, বরাদ্দের তুলনায় বারে অনুমোদন বিহীন বিপুল পরিমান দেশী-বিদেশী মদ ও বিয়ার মজুদ রয়েছে। অতিরিক্ত মাদক দ্রব্যের বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে বারের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও কর্মচারীগন বৈধ কোন কাজগপত্র দেখাতে পারেনি। এছাড়াও অনুমোদিত ব্যক্তিদের তালিকা, মদ ও বিয়ার বিক্রির রেজিষ্টারপত্র সংরক্ষন না করার ব্যাপারে বারের ম্যানেজার ও কর্মচারীগন কোন সন্তোষ জনক জবাব দিতে পারে নাই। উক্ত বারের মালিক খান মোহাম্মদ এহসান এবং ফতিউল বারী চৌধুরী (ম্যানেজিং পার্টনার) পলাতক আছে। তাদেরকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় নিয়ে আসতে র‌্যাবের গোয়েন্দা কার্যক্রম অব্যহত আছে।

৪।    গ্রেফতারকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদে আরও জানা যায় যে, ইতিপুর্বে উক্ত বারে অবৈধ মাদকদ্রব্য ক্রয় বিক্রয়ের অপরাধে র‌্যাব সহ বিভিন্ন আইন প্রয়োগকারী সংস্থা কর্তৃক ধৃত হয়েছে। অনুমোদিত ব্যক্তিদের নিকট মাদক বিক্রির নাম ঠিকানা সম্বলিত রেজিষ্টার সংরক্ষন না করে তারা দীর্ঘদিন যাবৎ দেশী-বিদেশী মদ ও বিয়ার মাত্রাতিরিক্ত মজুদসহ অবৈধভাবে ক্রয় বিক্রয় করে আসছে।

৫।    উপরোক্ত বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন।

সাম্প্রতিক ভিডিও




র‌্যাব কর্তৃক প্রদত্ত পরামর্শ

***জমি জমা বা টাকা-পয়সা সংক্রান্ত কোন অভিযোগ র‌্যাব কর্তৃক গ্রহণ করা হয় না ।
***ব্যক্তিগত বা পারিবারিক কোন সমস্যা র‌্যাব কর্তৃক গ্রহণ করা হয় না ।
***কোন অভিযোগ করার পূর্বে আপনার এলাকার জন্য দায়িত্বপূর্ন র‌্যাব ব্যাটালিয়ন/ক্যাম্প সম্পর্কে জানুন ও যথাযথ র‌্যাব ব্যাটালিয়ন/ক্যাম্পে অভিযোগ করুন ।
***আপনার এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী, অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীদের সম্পর্কে র‌্যাব কে তথ্য প্রদান করে র‌্যাবকে সহযোগীতা করুন । আপনার পরিচয় সম্প‍ুর্ন্ন গোপন রাখা হবে । ***বেশী করে গাছ লাগান অক্সিজেনের অভাব তাড়ান
***ছোট ছোট ছেলে-মেয়েদের আগুন নিয়ে খেলতে দিবেন না ।
***যাত্রা পথে অপরিচিত লোকের দেওয়া বিছু খাবেন না । ভ্রমণকালে সহযোগী বা অন্য কাহারো নিকট হইতে পান, বিড়ি, সিগারেট, চা বা অন্য কোন পানীয় খাওয়া/গ্রহন করা হইতে বিরত ‍থাকা আবশ্যক ।