Home » News Room » র‌্যাবের অভিযানে নারায়ণগঞ্জের চিটাগাং রোড এলাকা হতে ০৩ জন চাঁদাবাজ গ্রেফতার।

র‌্যাবের অভিযানে নারায়ণগঞ্জের চিটাগাং রোড এলাকা হতে ০৩ জন চাঁদাবাজ গ্রেফতার।

RAB-11 (1)

১। র‌্যাব প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সমাজের বিভিন্ন অপরাধের উৎস উদঘাটন, অপরাধীদের গ্রেফতার, আইনশৃংখলার সামগ্রিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। বিভিন্ন অপরাধীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার জন্য র‌্যাব ফোর্সেস নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে থাকে। সাম্প্রতিক সময়ে র‌্যাব-১১ এর দায়িত্বপূর্ন এলাকায় চাঁদাবাজি অনেকাংশে বৃদ্ধি পেয়েছে। উক্ত অপরাধ দমনের লক্ষ্যে র‌্যাব-১১ চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে আসছে।

২। এরই ধারাবাহিকতায় গত ২৫ জুন ২০১৯ তারিখ সন্ধ্যায় র‌্যাব-১১ এর একটি অভিযানে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চিটাগাং রোড এলাকায় চাঁদাবাজি করার সময় ০৩ জন চাঁদাবাজ’কে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো ১। মোঃ শামাীম (২৯), পিতা- মৃত মোহাম্মদ আলী, ২। মোঃ ইকবাল হোসেন (৩৯), পিতা- মৃত হাসেম বাছর এবং ৩। রকিব (১৯), পিতা- মোঃ রুনু মিয়া। এই সময় চাঁদাবাজদের কাছ থেকে চাঁদাবাজির নগদ ২৮,৮০০/- টাকা উদ্ধার করা হয়।

৩। উপস্থিত স্বাক্ষী, স্থানীয় ব্যবসায়ী ও গ্রেফতারকৃতদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় একটি চাঁদাবাজ চক্র দীর্ঘদিন ধরে চিটাগাং রোড এলাকায় ফুটপাতে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ও মার্কেটের দোকানদারদের কাছ থেকে ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদর্শন করে জোরপূর্বক প্রতিদিন ১০০/- থেকে ৫০০/- টাকা করে চাঁদা আদায় করে আসছে। কোন ব্যবসায়ী বা দোকানদার চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে তাদের মারধরসহ জীবন নাশের হুমকি প্রদান করে আসছে। র‌্যাব-১১ এর অনুসন্ধানে চাঁদাবাজি সংক্রান্তে অভিযোগের সত্যতা পেয়ে চাঁদাবাজি বন্ধ ও জড়িতদের আইনের আওতায় আনার জন্য গত ২৫ জুন ২০১৯ তারিখ সন্ধ্যায় চিটাগাং রোড এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে জোরপূর্বক চাঁদা আদায়কালে উপরোক্ত ০৩ জন’কে গ্রেফতার করা হয়। চাঁদাবাজ বন্ধে র‌্যাবের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

৪। উপরোক্ত বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

সাম্প্রতিক ভিডিও




র‌্যাব কর্তৃক প্রদত্ত পরামর্শ

***জমি জমা বা টাকা-পয়সা সংক্রান্ত কোন অভিযোগ র‌্যাব কর্তৃক গ্রহণ করা হয় না ।
***ব্যক্তিগত বা পারিবারিক কোন সমস্যা র‌্যাব কর্তৃক গ্রহণ করা হয় না ।
***কোন অভিযোগ করার পূর্বে আপনার এলাকার জন্য দায়িত্বপূর্ন র‌্যাব ব্যাটালিয়ন/ক্যাম্প সম্পর্কে জানুন ও যথাযথ র‌্যাব ব্যাটালিয়ন/ক্যাম্পে অভিযোগ করুন ।
***আপনার এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী, অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীদের সম্পর্কে র‌্যাব কে তথ্য প্রদান করে র‌্যাবকে সহযোগীতা করুন । আপনার পরিচয় সম্প‍ুর্ন্ন গোপন রাখা হবে । ***বেশী করে গাছ লাগান অক্সিজেনের অভাব তাড়ান
***ছোট ছোট ছেলে-মেয়েদের আগুন নিয়ে খেলতে দিবেন না ।
***যাত্রা পথে অপরিচিত লোকের দেওয়া কিছু খাবেন না । ভ্রমণকালে সহযোগী বা অন্য কাহারো নিকট হইতে পান, বিড়ি, সিগারেট, চা বা অন্য কোন পানীয় খাওয়া/গ্রহন করা হইতে বিরত ‍থাকা আবশ্যক ।