Home » News Room » র‌্যাবের অভিযানে কুখ্যাত সন্ত্রাসী নজরুল @ টেক্কা নজরুল অস্ত্রসহ গ্রেফতার

র‌্যাবের অভিযানে কুখ্যাত সন্ত্রাসী নজরুল @ টেক্কা নজরুল অস্ত্রসহ গ্রেফতার

১।    র‌্যাব প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকেই জঙ্গী, শীর্ষ সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ, ছিনতাইকারী ও মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতার করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-১৪, একটি আভিযানিক দল গত ০৭ জুন ২০১৭ ইং তারিখ ১৪০০ ঘটিকার সময় ময়মনসিংহ জেলার কোতোয়ালী মডেল থানাধীন খাগডহর ঘুন্টি এলাকায় বিশেষ অভিযান চালিয়ে কুখ্যাত সন্ত্রাসী এবং চাঁদাবাজ নজরুল বাহিনীর প্রধান নজরুল @ টেক্কা নজরুলকে গ্রেফতার করে। তার নিকট হতে সন্ত্রাসী কাজে ব্যবহ্নত ০১ টি বিদেশী পিস্তল, ০২ রাউন্ড গুলি এবং ০১টি ম্যাগাজিন, ০১ (এক)টি রামদা পাওয়া যায়।

২।    নজরুল বাহিনীর লোকজন দীর্ঘদিন যাবৎ এলাকার মানুষকে অস্ত্রের ভয়ভীতি দেখিয়ে জনমনে ভীতির সঞ্চার করে আসছিল। বাহিনীর লোকজনের তান্ডবে এলাকার লোকজন অতিষ্ঠ হয়ে ওঠে। টেক্কা নজরুল ও তার বাহিনীর লোকজন প্রকাশ্য দিবালোকে মানুষের বুকে অস্ত্র ঠেকিয়ে চাঁদা আদায় করে। অত্র এলাকার মানুষ টেক্কা নজরুল ও তার বাহিনীর লোকজনকে গ্রেফতারের দাবীতে প্রায় তিনশত সাধারণ জনগণ গণস¦াক্ষর করে ও  জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে অভিযোগ দেয় এবং বিভিন্ন লিফলেট ও পোষ্টার ছাপায়। সে ভূমি দস্যু হিসেবে ময়মনসিংহ জেলার খাগডহর ইউনিয়নের ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছিল। তার বিরুদ্ধে ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানায় খুনের মামলাসহ একাধিক মামলা ও জিডি রয়েছে। তার সন্ত্রাসী কার্যকলাপে এলাকাবাসী সবসময় আতংকিত থাকতো। এসকল ব্যাপারে সম্প্রতি জেলা পুলিশ সুপার, র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়নসহ বিভিন্ন দপ্তরে স্থানীয় লোকজন অভিযোগ দায়ের করে এবং পূর্বেও তাকে গ্রেফতারের দাবীতে মানববন্ধন করা হয়। ২০১৩ সালের জানুয়ারি মাসে ভূমি দখল করতে গিয়ে টেক্কা নজরুল ভূমি মালিকদের অমানুষিক নির্যাতন করে ভাংচুর ও চুরি করে এবং সে ২০১৩ সালে মে মাসে একটি খুন করে। ২০১৫ সালে একটি জমি দখল করতে গিয়ে দ্রুত বিচার মামলাসহ তিনটি মামলার আসামী হয়। এর মধ্যে দুটি দ্রুত বিচার আইনে মামলা আছে। তার বাহিনীর কাছে আগ্নেয়াস্ত্র সহ বিভিন্ন ধরনের দেশীয় অস্ত্র রয়েছে বলে জানা যায়। এই দলের সদস্য সংখ্যা হচ্ছে ১৫/১৬ জন। এদের মধ্যে উল্লেযোগ্য হচ্ছে সাইদুল, লালচান, কানন, ইকবাল, মিলন, মোতালেব, তাজু, রিপনসহ অনেকে। এলাকা বাসী জানিয়েছে টেক্কা নজরুল যেকোন বিবাদমান ভূমি মালিকদের পক্ষ নিয়ে জবরদখল, বাড়িঘর নির্মাণ ও যাবতীয় আধিপত্য ও ঠিকাদারী নিয়ে থাকে। এ জন্য যেকোন সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালাতে সে পিছপা হয় না। এ ছাড়াও ময়মনসিংহের সিএসডি’তে খাদ্য কর্মকর্তাকে মারধরের অভিযোগে তার বিরুদ্ধে মামলা রয়েছে।

৩।    টেক্কা নজরুলের অত্যাচার, জুলুম, নির্যাতন, চাঁদাবাজী ও অন্যান্য অত্যাচারের কারণে নিরীহ সাধারন মানুষ বিচারের দাবীতে সোচ্চার। তারা আরও অভিযোগ করেছেন সুনির্দিষ্ট ভাবে কোন ব্যক্তির একক ভাবে টেক্কা নজরুলের বিরুদ্ধে কথা বলা, মুখ খোলা ও বিচার দাবী করার মতো সাহস নেই। তারা জানায় বৌ-ঝিরা ইজ্জত হানি, শ্লীলতাহানি ও ধর্ষনের শিকার হলেও থানায় কিংবা বিজ্ঞ আদালতে মামলা দায়ের করতে সাহস পায় না। এর মধ্যে খুন, সরকারী কর্মকর্তাদের মারধর, চাঁদাবাজী ও ভূমি দখলের ঘটনা রয়েছে। গতকাল র‌্যাবের হাতে ধৃত হওয়ার ফলে এলাকায় জনগণের মনে স¦স্তি ফিরে আসে।

৪।    গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

সাম্প্রতিক ভিডিও




র‌্যাব কর্তৃক প্রদত্ত পরামর্শ

***জমি জমা বা টাকা-পয়সা সংক্রান্ত কোন অভিযোগ র‌্যাব কর্তৃক গ্রহণ করা হয় না ।
***ব্যক্তিগত বা পারিবারিক কোন সমস্যা র‌্যাব কর্তৃক গ্রহণ করা হয় না ।
***কোন অভিযোগ করার পূর্বে আপনার এলাকার জন্য দায়িত্বপূর্ন র‌্যাব ব্যাটালিয়ন/ক্যাম্প সম্পর্কে জানুন ও যথাযথ র‌্যাব ব্যাটালিয়ন/ক্যাম্পে অভিযোগ করুন ।
***আপনার এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী, অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীদের সম্পর্কে র‌্যাব কে তথ্য প্রদান করে র‌্যাবকে সহযোগীতা করুন । আপনার পরিচয় সম্প‍ুর্ন্ন গোপন রাখা হবে । ***বেশী করে গাছ লাগান অক্সিজেনের অভাব তাড়ান
***ছোট ছোট ছেলে-মেয়েদের আগুন নিয়ে খেলতে দিবেন না ।
***যাত্রা পথে অপরিচিত লোকের দেওয়া বিছু খাবেন না । ভ্রমণকালে সহযোগী বা অন্য কাহারো নিকট হইতে পান, বিড়ি, সিগারেট, চা বা অন্য কোন পানীয় খাওয়া/গ্রহন করা হইতে বিরত ‍থাকা আবশ্যক ।